এস এ পর্চা বের করার নিয়ম

এস এ পর্চা বের করার নিয়ম

এস এ পর্চা বের করার নিয়মঃ কম বেশি আমাদের সকলের পর্সা বা খতিয়ান সম্পর্কে জানা আছে। তার পরেও যাদের জানা নেই আপনাদের জন্য বলা হচ্ছে। খতিয়ান বা পর্চা হছে রেকডিও মালিকের নামে জমির মালিক হিসেবে একটা গুরুত্বপূণ্য কাগজ। যা দ্বারা জমির মালিক নিশ্চিত করা হয়। তাছাড়া জমির খতিয়ানের কপি দ্বারা আপনি আপনার জমি যে কারো কাছ থেকে মালিকানা ফিরিয়ে নিয়ে আসতে পারবেন।আর এই সিস্টেমটা হচ্ছে ই-পর্চা। বা অনলাইনে খতিয়ান দেখা।

এস এ পর্চা কি ?

এস এ পর্চা হলো ১৯৫০ সনে রাষ্ট্রীয় অধিগ্রহণ ও প্রজাস্বত্ব আইনের ২৭ হতে ৩১ ধারা অনুযায়ী ১৯৫৬-১৯৬৩ সালে যে খতিয়ান বা পর্চা প্রস্তুত করা হয়ে ছিলো সেটা হচ্ছে এস এ পর্চা। আরেকটু সহজ করে বললে ১৯৫০ সনে জমিদারি অধিগ্রহণ ও প্রজাস্বত্ব আইন প্রনয়ন করার পরে যে পর্চা প্রস্তুত করা হয় সেটাকেই বলে এস এ পর্চা। কেউ কেউ এই পর্চাকে ৫৬ এর রেকর্ড বা ৫৬ পর্চা বলে। কোন কারনে যদি এই পর্চা হারিয়ে ফেলেন তবে কিভাবে আপনি আপনার মোবাইল দিয়ে ঘবে বসে এস.এ পর্চা সংগ্রহ করবেন আজ সেই বিষয়টি শেয়ার করবো।

হারিয়ে যাওয়া এস.এ পর্চা কি ভাবে ঘরে বসে সংগ্রহ করবেন

আপনি যদি কোনো কারণে আপনার এস.পর্চা হারিয়ে ফেলেন আর এস.পর্চা বা ৫৬ এর রেকর্ড খোঁজান তবে এই লেখাটি আপনার জন্য । আপনি এখন থেকে ঘবে বসে ভূমির যে কোনো পর্চা ডাউলোড করতে পারবেন। আপনি আপনার হাতে থাকা মোবাইল দিয়ে যে কোন পর্চা সংগ্রহ করতে পারবেন। হারিয়ে যাওয়া এস.এ পর্চা আপনি ঘরে বসেই পেয়ে যাবেন।
যে ভাবে পর্চা ডাউনলোড করবেন।

আরো দেখুনঃ E-Porcha খতিয়ান অনুসন্ধান বা অনলাইনে পর্চা দেখা

পর্চা ডাউনলোড বা ই পর্চা হলো জমির পর্চা অনলাইন থেকে নেয়ার একটি অসাধারণ মাধ্যম। আপনি প্রথমে আপনার মোবাইরে থাকা যে কোনো একটি ব্রাউজার ওপেন করুন । এবার সার্চ অপশনে ই পর্চা অথবা www.land.gov.bd লিখে সার্চ করুন। এবার নাগরিক কর্ণার থেকে খতিয়ান অনুসন্ধানে ক্লিক করুন। এখন নিজের জেলার পাশে থাকা মানচিত্র থেকে সহজেই বেছে নিন। পর্চার ধরন থেকে আপনি যে পর্চা খোঁজ করছেন সেটি সিলেক্ট করুন।

এবার বাকি বিষয় গুলো খেয়াল করুন। আপনি আপনার উপজেলা, মৌজার নাম, খতিয়ান,, দাগ নাম্বার, মালিকের নাম, অথবা মালিকের পিতার নাম লিখে নিচে থাকা ক্যাপচা কোডটি লিখুন। তারপরে পরবর্তী ধাপে ক্লিক করুন। এবার আপনি আপনার এন আইডি কার্ডের নাম্বার টাইপ করুন। একটি সচল মোবাইল নাম্বার দেন এবার যাচাইয়ে ক্লিক করুন। সবশেষে আপনার সামনে যে যোগ করার জন্য বলা হবে সেটা সঠিক যোগফল দিয়ে আপনি আপনার এস.এ পর্চা ডাউনলোড করে নিতে পারেন। অথবা সরাসরি খতিয়ান অনুসন্ধানের জন্য পাশে থাকা লিংকে ক্লিক করুনঃ eporcha.gov.bd/khatian-search-panel?district=58

অনলাইন ভুমি সেবার জন্য আরো অনেক গুলো সেবা বাংলাদেশ সরকার চালু করে দিয়েছে। তার মধ্যে আরো যে গুলো রয়েছে। তা হলো-
১। ই নামজরি
২। নাগরিক কর্ণার।
৩। নামজারি ট্রাকিং।
৪। ভূমি উন্নয়ন কর।
৫। ডিজিটাল ল্যান্ড রেকর্ড।
৬। রেন্ট সার্টিফিকেট মামলা।
৭। বাজেট ব্যবস্থাপনা।
৮। অভিযোগ প্রতিকার ব্যবস্থাপনা।
৯। উত্তরাধিকারী অ্যাপ।
১০ । ই-বুক অ্যাপ সহ অনলাইনে পর্চা দেখার বা অনলাইন থেকে যে কোন পর্চা সংগ্রহ করার মতো নানাবিধ পদক্ষেপ রয়েছে।

আরো পড়ুনঃ ভূমি উন্নয়ন কর বা খাজনা রশিদ অনলাইন থেকে সংগ্রহ

ভুমি সংক্রান্ত যে কোন কিছু জানতে চাইলে আপনি আমাদের কমেন্ট করুন। এবং ভূমি সংক্রান্ত কোন সেবা নিতে চাইলে আমাদের পেইজে লাইক দিয়ে আমাদের সাথে জয়েন হয়ে আপনার সমস্যা আমাদের বলতে পারেন। আশা করি আপনার সমস্যা আমারা সমাধান করে দিতে সক্ষম হবো। সোর্স

6 thoughts on “এস এ পর্চা বের করার নিয়ম”

  1. অনেক ভালো তথ্য দিয়েছেন, আপনাকে অনেক ধন্যবাদ, আরও জানতে ক্লিক করেন।

Leave a Comment

Your email address will not be published.