পারিবারিক সনদপত্র লেখার নিয়ম

পারিবারিক সনদপত্র লেখার নিয়ম ও নমুনা

বাংলাদেশে বিভিন্ন সরকারি, বেসরকারি কিংবা পারিবারের অভ্যন্তরীণ কাজে পারিবারিক সনদপত্রের প্রয়োজন হলে, জেনে নিন পারিবারিক সনদপত্র লেখার নিয়ম ও নমুনা সম্পর্কে বিস্তারিত।

পারিবারিক সনদপত্র একটি সরকারি সনদ। বিভিন্ন কাজে পরিবারের সদস্য হিসেবে নিজেকে প্রমান করার জন্য এই সনদপত্রের প্রয়োজন হয়। তবে এই বিশেষ প্রমানপত্রটি লেখার নিয়ম সম্পর্কে জানেন না অনেক সাধারন মানুষ, এমনকি জনপ্রশাসন কর্মকর্তাও। পারিবারিক সনদপত্র লেখার নিয়ম ও নমুনা, কি কাজে লাগে এবং কোথায় পাবেন, তার বিস্তারিত তথ্য থাকছে এই লেখাতে।

পারিবারিক সনদপত্র কোথায় পাবেন?

পারিবারিক সনদপত্র সাধারণত স্থানীয় জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয় থেকে সংগ্রহ করতে হয়। যেমন- উপজেলা পরিষদ, স্থানীয় চেয়ারম্যান অফিস, ওয়ার্ড কাউন্সিলর অফিস বা সিটি কর্পোরেশন অফিস থেকে নেওয়া যেতে পারে। 

এর জন্য প্রথমে আপনার সুবিধা অনুযায়ী নিকটস্থ কার্যালয়ে আবেদন করতে হবে। তারপর সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তা কর্তৃক একটি সত্যায়িত প্রত্যয়ন পত্র দেওয়া হবে।

পারিবারিক সনদপত্র কি কাজে লাগে?

বাংলাদেশের বিভিন্ন সরকারি ও পারিবারিক কাজে পারিবারিক সনদপত্রের প্রয়োজন হয়। পরিবারের ওয়ারিশদের ক্ষেত্রে, লেনদেনের ক্ষেত্রে এবং বিভিন্ন পেশার পেনশনের পেতে পারিবারিক সনদপত্রের প্রয়োজন হয়। পরিবারের সদস্য হিসেবে প্রমাণ করার জন্যও পারিবারিক প্রত্যয়ন পত্রের লাগে।

পারিবারিক সনদপত্র লেখার নিয়ম (নমুনা)

গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার

চেয়ারম্যানের কার্যালয়

১ নং রাধানগর ইউনিয়ন পরিষদ 

ডাকঘর: মুগারচর, উপজেলা: মেঘনা

জেলা: কুমিল্লা।

স্মারক নং: প্র. পি. কা /-

তারিখ:-

পারিবারিক প্রত্যয়ন পত্র”

           এই মর্মে প্রত্যয়ন করা যাচ্ছে যে, এই মর্মে প্রত্যয়ন করা যাচ্ছে যে, নাম:_______________, পিতা:__________, মাতা:__________,  গ্রাম:__________,  পোস্ট অফিস:__________, ইউনিয়ন পরিষদ_________,  থানা:__________,  জেলা:__________। তিনি অত্র ইউনিয়ন / ওয়ার্ড এর স্থানীয় একজন বাসিন্দা ও আমার ব্যক্তিগত পরিচিত। আমার জানামতে তার দুই ছেলে ও এক মেয়ে। তার সন্তানদের বয়সের জোষ্ঠতা ক্রম অনুসারে নিম্নে একটি ছক অনুযায়ী দেয়া হলো –

ক্রমিক নং     নাম আইডি / জন্মনিবন্ধন নং জন্ম তারিখ সম্পর্ক 
১ম মো: জাকির হোসেন ১৯৯৭৪২১৮৪৫৪**১০/১২/২০০১১ম সন্তান ছেলে 
২য় জান্নাত আক্তার ২০০৪৪২৩৮৪৫৪**০১/০৫/২০০৪২য় সন্তান মেয়ে 
৩য় মাহফুজ ইসলাম ২০১৩৪২৩৮৪৫৪**১৫/০৭/ ২০১৪৩য় সন্তান ছেলে 

আমি তার এবং তার পরিবারের সকলের ভবিষ্যৎ জীবনের সর্বাঙ্গীন মঙ্গল ও সাফল্য কামনা করছি।

স্বাক্ষর:________

ইউনিয়ন পরিষদের/ চেয়ারম্যানের সিলমোহর।

বর্তমানে অনলাইনেও prottoyon.gov.bd ওয়েবসাইটে রেজিস্টার করে পারিবারিক সনদপত্রের জন্য আবেদন করতে পারবেন।

পারিবারিক সনদপত্র লেখার নিয়ম ওয়ার্ড ফাইলপারিবারিক সনদপত্র লেখার নিয়ম পিডিএফ ফাইল

শেষকথা

পারিবারিক সনদপত্রটি ব্যবহার করে অনেক জটিলতা থেকে মুক্তি পাওয়া যায়। বর্তমানে অনলাইনেও পারিবারিক সনদের জন্য আবেদন করা যায়। তবে সেক্ষেত্রে বেশি সময় লাগতে পারে। তাই সরাসরি চেয়ারম্যান অফিসে আবেদন করে পারিবারিক সনদপত্র লেখার নিয়মে একটি প্রত্যয়ন সংগ্রহ করাই ভালো।

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Scroll to Top