টফি অ্যাপ দিয়ে টাকা ইনকাম

টফি অ্যাপ দিয়ে টাকা ইনকাম ২০২৩

আপনি কি মোবাইলের অ্যাপ থেকে টাকা উপার্জন করতে চান? তাহলে জেনে নিন মোবাইলে টফি অ্যাপ দিয়ে টাকা ইনকাম করার উপায়।

বাংলাদেশের সেরা টাকা ইনকাম করার মোবাইল অ্যাপস হলো- Toffee। টফি অ্যাপে খুব সহজে সাধারণ ভিডিও আপলোড করেও ইনকাম করতে পারবেন। এবং সেই উপার্জন করা টাকা নিতে পারবেন আপনার বিকাশ বা নগদে। কিন্তু আমরা অনেকেই জানিনা কিভাবে টফি অ্যাপ দিয়ে টাকা ইনকাম করা যায়।

টফি কি, কিভাবে টফি অ্যাপ দিয়ে টাকা ইনকাম করবো, টফি চ্যানেল তৈরি করার নিয়ম ও টফি অ্যাপের মনিটাইজেশন পেতে কি কি লাগে সে সম্পর্কে আমাদের আজকের বিস্তারিত আলোচনা।

টফি কি?

টফি একটি মোবাইল অ্যাপ এবং বাংলাদেশের তৈরি প্রথম ভিডিও প্ল্যাটফর্ম। বাংলাদেশের এক নাম্বার মোবাইল সিম অপারেটর Banglalink কোম্পানি এই অ্যাপস তৈরি করেন। বিশ্বের সবচেয়ে বড় ভিডিও প্ল্যাটফর্ম ইউটিউব এর মতো টফিতে ও সকল সুবিধা পাওয়া যায়।

টফিতে খেলা, শর্ট ফিল্ম, ধারাবাহিক নাটক, ওয়েব সিরিজ, মুভি, গান, ফানি ভিডিও, শিক্ষামূলক ভিডিও, বিভিন্ন টিভি চ্যানেল সবকিছুই পাওয়া যায়। বাংলালিংক সিম কোম্পানির নিজস্ব অ্যাপস হওয়ায় অল্প মূল্যে ইন্টারনেট ক্রয় করে টফি অ্যাপ ব্যবহার করা যায়। বাংলালিংক সিম থেকে টফি অ্যাপ এর বিভিন্ন অফার পাওয়া যায় যেকোনো সময়।

টফি অ্যাপ এ ইউটিউব ফেসবুক বা অন্যান্য প্ল্যাটফর্মের মত অ্যাড এর ঝামেলা কম। বর্তমানে টফি অ্যাপ দিয়ে টাকা ইনকাম করা যায় খুব সহজেই।

কীভাবে টফি অ্যাপ দিয়ে টাকা ইনকাম (Toffee app income)

টফি অ্যাপসের সবচেয়ে আকর্ষণীয় বিষয় হলো বর্তমানে টফিতে ভিডিও আপলোড করে খুব সহজে ইনকাম করা যায়। টফি অ্যাপ ডাউনলোড করে তাতে ক্রিয়েটর চ্যানেল তৈরি করে ভিডিও আপলোড করে ইনকাম করতে পারবেন।

টফি চ্যানেল খুলতে কোন বাড়তি ঝামেলা পোহাতে হয় না। এছাড়াও নিজের হাতে থাকা মোবাইল ফোন দিয়েই সবকিছু করা যায়। টফি চ্যানেলে ইউটিউবের মতো মনিটাইজেশনের শর্তাবলী তেমন কঠিন নয়। তাই বর্তমানে টফি থেকে ইনকাম করা খুবই জনপ্রিয় একটি বিষয় হয়ে উঠেছে।

এটি বাংলাদেশের নিজস্ব প্ল্যাটফর্ম হওয়ায় এর থেকে উপার্জনের সম্ভাবনা নিশ্চিত ও বিশ্বস্ত। তাই আপনি একজন কনটেন্ট ক্রিয়েটর হয়ে টপি অ্যাপ দিয়ে টাকা ইনকাম করতে পারবেন আজ থেকেই।

অনেক সময় আমরা টিকটক ফেসবুক বা অন্যান্য প্ল্যাটফর্মে শর্ট ভিডিও আপলোড করে থাকি। কিন্তু তা থেকে আমাদের উপার্জনের কোন সুযোগ থাকে না। টফি অ্যাপে সেই ধরনের কনটেন্ট আপলোড করেও ভালো পরিমাণ ইনকাম করা সম্ভব। অল্প কিছু সময় দিয়েই নিজের হাতে থাকা স্মার্টফোন ব্যবহার করে এবং বাংলালিংক সিম থেকে স্বল্প মূল্যে টফি ইন্টারনেট অফার কিনে এই অ্যাপ এ ভিডিও আপলোড করে ইনকাম করতে পারবেন।

টফিতে নিজের কপিরাইট মুক্ত কনটেন্ট তৈরি করে তা আপলোড করলে এর ব্যবহারকারীরা সেই ভিডিও দেখলে ইনকাম হতে থাকে। যত বেশি ভিউ হবে আপনার টফি অ্যাপ দিয়ে টাকা ইনকাম ও তত বেশি হবে।

টফি থেকে টাকা উঠাতেও ব্যাংকের শরণাপন্ন হতে হয় না। মোবাইল ব্যাংকিং ব্যবস্থা নগদ বা বিকাশ দিয়ে সেই ইনকাম নিজের হাতে নেওয়া যায় খুব সহজে।

টফি চ্যানেল খুলতে কি কি লাগে

টফি অ্যাপ ব্যবহার করতে তেমন কিছু প্রয়োজন হয় না। তবে চ্যানেল খুলে ভিডিও আপলোড করে ইনকাম করতে চাইলে কিছু বিষবস্তুর প্রয়োজন হয়। সেগুলো হলো-

  • একটি স্মার্ট ফোন
  • একটি সচল মোবাইল নাম্বার
  • একটি ইমেইল এড্রেস
  • চ্যানেল মালিকের জাতীয় পরিচয় পত্র
  • চ্যানেল মালিকের জন্ম তারিখ
  • একটি পেমেন্ট অপশন
  • ভিডিও তৈরি করার আগ্রহ ও দক্ষতা।

উপরোক্ত বিষয়বস্তুগুলো আমাদের সকলের কাছেই সাধারণভাবে থেকে থাকে। তাই খুব সহজেই টফি চ্যানেল খোলা ইনকাম করা যায়।

টফি অ্যাপে চ্যানেল খোলার নিয়ম

টফি অ্যাপ দিয়ে টাকা ইনকাম করার জন্য চ্যানেল খুলতে অবশ্যই প্রথমে গুগল প্লে স্টোর থেকে টফি অ্যাপটি ডাউনলোড করে নিন। তারপর অ্যাপ ওপেন করে করুন। টফি স্ক্রিনশট দেওয়া যায় না তাই স্ক্রিনশট ব্যতীত ধাপগুলো দেওয়া হল-

ধাপ-১: টফি অ্যাপ এ সাইন ইন

অ্যাপস ওপেন করার পর ডান দিকের উপরের কর্নারে প্রোফাইল অপশন দেখতে পাবেন সেখানে ক্লিক করে আপনার একটি সচল মোবাইল নাম্বার দিয়ে সাইন ইন করে নিতে পারবেন। অথবা মাই চ্যানেলে ক্লিক করলেও আপনার সামনে পরবর্তীতে সাইন ইন অপশন আসবে।

ধাপ-২: Create Channel

অ্যাপ এর হোমপেজে ডান দিকের নিচে My Channel – লেখাটি দেখতে পাবেন। সেখানে ক্লিক করে পরবর্তী পেজে যান। এবার Create Channel- এ ক্লিক করে চ্যানেল তৈরির প্রক্রিয়া শুরু করুন।

ধাপ-৩: Channel Logo

আপনার চ্যানেলের জন্য একটি প্রোফাইল ছবি বা লোগো দিন। এটি আপনার চ্যানেলের মেইন পেজে প্রদর্শিত হবে এবং আপনার আপলোড করা প্রতিটি ভিডিওর পাশে দেখানো হবে। তাই চ্যানেল তৈরি করার পূর্বেই একটি আকর্ষনীয় Logo তৈরি করে রাখুন।

ধাপ-৪: Channel Name and Description

আপনার টফি চ্যানেল এর নাম কি হবে তা প্রথমেই লিখুন। তারপর Description অপশনে আপনার চ্যানেলের ভিডিওগুলোর টপিক সম্পর্কিত তথ্য এবং চ্যানেলের গঠন সম্পর্কে সংক্ষিপ্ত তথ্য লিখুন।

ধাপ-৫: Category সিলেক্ট

এই অপশনে আপনার টফি চ্যানেলে কোন ধরনের ভিডিও আপলোড করবেন তা সিলেক্ট করুন। ক্যাটাগরি এর ড্রপডাউন মেনু তে ক্লিক করলে অনেকগুলো ক্যাটাগরি দেখতে পাবেন। যেমন- Web series, Movies, Drama, Food, Blog, Gaming, Comedy, Educational – এবং আরো কিছু ক্যাটাগরি দেখতে পাবেন।

আপনি কোন বিষয়ের উপর ভিডিও আপলোড করবেন তা প্রথমেই সিলেক্ট করে নিন। উদাহরণস্বরূপ- ফানি ভিডিও তৈরি করতে চাইলে “Comedy” সিলেক্ট করুন। সেই ক্যাটাগরি অনুযায়ী টফি অ্যাপ দিয়ে টাকা ইনকাম করতে পারবেন।

ধাপ-৬: ক্রিয়েটরস ইনফর্মেশন

চ্যানেল তৈরি করতে আপনার ব্যক্তিগত কিছু তথ্য প্রদান করতে হয়। সেগুলো হল-

  1. Name- আপনার সম্পূর্ণ নাম এখানে লিখুন। খেয়াল রাখবেন অবশ্যই আপনার নামটি যেন জাতীয় পরিচয়পত্র অনুযায়ী হয়।
  2. Address- আপনার ঠিকানার সম্পূর্ণ তথ্য দিন। NID কার্ডের পিছনের তথ্য অনুযায়ী গ্রাম, পোস্ট অফিস, উপজেলা ও জেলার নাম লিখুন।
  3. Date of birth- আপনার সঠিক জন্ম তারিখ লিখুন। অবশ্যই সর্বনিম্ন ১৮ বছর হতে হবে। তথ্য আইডি কার্ড অনুযায়ী না হলে পরবর্তীতে চ্যানেলে সমস্যা হতে পারে।
  4. Email Address- চ্যানেলে ব্যবহৃত হবে এমন একটি ইমেইল এড্রেস লিখুন।
  5. NID Number- আপনার জাতীয় পরিচয়পত্রের নম্বর সঠিকভাবে লিখুন।
  6. Mobile Number- একাউন্টে সাইন ইন করার সময় ভেরিফাই করা মোবাইল নাম্বার দেখানো হবে। আপনি চাইলে এখান থেকে অন্য কোন মোবাইল নাম্বার ব্যবহার করতে পারবেন।
  7. Payment Option- আপনার টফি অ্যাপ থেকে ইনকাম হলে তা কোন মাধ্যমে নিতে চান সেটি সিলেক্ট করুন। যেমন- Bkash, Nagad.

সম্পূর্ন তথ্য পূরন শেষে Create Channel লেখাটিতে ক্লিক করলেই আপনার টফি চ্যানেল তৈরি হয়ে যাবে। এবার এখান থেকে ভিডিও আপলোড করে টফি অ্যাপ দিয়ে টাকা ইনকাম শুরু করতে পারবেন।

কি ধরনের ভিডিও আপলোড করলে বেশি ভিউ পাবেন

টফি অ্যাপের থেকে ভালো পরিমাণ ইনকাম করতে চাইলে অবশ্যই এমন ভিডিও তৈরি করতে হবে যাতে ভিউ বেশি হয়। একজন ভিডিও কনটেন্ট ক্রিয়েটর হিসেবে আপনার প্রথম বৈশিষ্ট্য হচ্ছে ভিউয়ার রিসার্চ করা।

প্রথমেই লক্ষ্য রাখবেন বর্তমানে কোন ধরনের ভিডিওগুলো টফি, ফেসবুক, ইউটিউব কিংবা অন্যান্য প্ল্যাটফর্মে সবচেয়ে বেশি দেখা হয়। যেমন- ফানি ভিডিও, টিপস এন্ড ট্রিক্স, শর্ট ফিল্ম, ড্রামা এবং অন্যান্য ট্রেন্ডিং ভিডিও তৈরি করে আপলোড করলে অনেক বেশি ভিউ পাবেন এবং টফি অ্যাপ দিয়ে টাকা ইনকাম করতে পারবেন।

তবে একজন ব্যক্তি সকল ধরনের ভিডিও করে সফলতা পাবে না। আপনার আগ্রহ ও দক্ষতা অনুযায়ী একটি নির্দিষ্ট ক্যাটাগরীর ভিডিও আপলোড করুন। এত ভিডিও গুলো দর্শককে আকৃষ্ট করবে এবং সাবস্ক্রাইবার সংখ্যা বৃদ্ধি পাবে।

টফি অ্যাপে মনিটাইজেশন কিভাবে পাওয়া যায়

টফি অ্যাপে আপনার আপলোড করা ভিডিও থেকে ইনকাম করতে চাইলে অবশ্যই মনিটাইজেশন পেতে হয়। তবে এখানে মনিটাইজেশন পাওয়া ইউটিউবের মতো কঠিন নয়। মনিটাইজেশন পেতে হলে প্রয়োজন-

  • ১০০ সাবস্ক্রাইবার
  • ক্যাটাগরি ভিত্তিক কোয়ালিটি ফুল ভিডিও।
  • কপিরাইট মুক্ত ভিডিও

অল্প সময়েই ভালো ভিডিও আপলোড করে ১০০ সাবস্ক্রাইবার এর ছোট মাইলস্টোন পূরণ করে টফি অ্যাপে মনিটাইজেশন পেয়ে যাবেন। আপনার চ্যানেলে ১০০ সাবস্ক্রাইবার পূর্ণ হলে মনিটাইজেশন ও আর্নিং অপশন দেখতে পাবেন

টফি অ্যাপ থেকে কিভাবে টাকা পাবো( Toffee Income)

আমাদের মূল লক্ষ্য হচ্ছে টফি অ্যাপ দিয়ে টাকা ইনকাম। মনিটাইজেশন ফিলাপ হলে আপনার এফ এর প্রোফাইলে- “মনিটাইজেশন বা আর্নিং অপশন” দেখতে পাবেন। সেখানে আপনার ভিডিওর ভিউ অনুযায়ী টাকা যুক্ত হতে থাকবে।

আপনার সেই ইনকাম চ্যানেল খোলার সময় দেওয়া পেমেন্ট অপশনে প্রদান করা হবে। সেজন্য পেমেন্ট নিতে মনিটাইজেশন অপশনে গিয়ে Bkash/Nagad নাম্বারটি দিতে হবে। প্রতিমাসে একবার পেমেন্ট দেওয়া হয়।

FAQ’s

টফি অ্যাপের মালিক কে?

টফি একটি ভিডিও প্ল্যাটফর্ম এবং পরিষেবা। বাংলালিংক ডিজিটাল কমিউনিকেশনস লিমিটেডের মালিকানায় এই অ্যাপটি তৈরি ও পরিচালিত হয়।

টফি অ্যাপে কি আয় করা যায়?

টফিতে চ্যানেল তৈরি করে ভিডিও আপলোড করে টফি অ্যাপ দিয়ে টাকা ইনকাম যায়। সঠিকভাবে টফি অ্যাপ চ্যানেলে কপিরাইট মুক্ত কোয়ালিটি ফুল ভিডিও আপলোড করে এড মনিটাইজেশনের মাধ্যমে আয় করা যায়।

বাংলালিংক টফি অফার কি?

বাংলালিংক কোম্পানির নিজস্ব মোবাইল অ্যাপস হওয়ায় টফি অ্যাপ ব্যবহারের জন্য বাংলালিংক সিমের বিভিন্ন অফার পাওয়া যায়। এই অফারগুলো অন্যান্য অফারের তুলনায় স্বল্পমূল্যের হয় এবং অফার গুলো দিয়ে শুধু টফি অ্যাপ ব্যবহার করতে পারবেন।

টফি অ্যাপে কিভাবে খেলা দেখা যায়?

গুগল প্লে স্টোর থেকে টফি অ্যাপ ডাউনলোড করে তাতে একটি মোবাইল নাম্বার দিয়ে সাইন ইন করুন। এবার হোম পেজ থেকে Sports ক্যাটাগরিতে ক্লিক করে টফি অ্যাপে খেলা দেখতে পারবেন।

সর্বশেষ

মোবাইল দিয়ে ইনকাম করার অন্যতম একটি সারা অ্যাপস হচ্ছে টফি। কপিরাইট মুক্ত ভিডিও আপলোড করলে ভিউ অনুযায়ী টফি অ্যাপ দিয়ে টাকা ইনকাম করতে পারবেন। তবে চ্যানেলে কোন কপি ভিডিও আপলোড করলে আপনার একাউন্ট ব্যান হয়ে যেতে পারে।

আজকের আলোচনায় টফি অ্যাপ দিয়ে টাকা ইনকাম ২০২৩ সম্পর্কে জানতে পারলেন। লেখাটি ভালো লাগলে অবশ্যই কমেন্ট করে জানান। অনলাইন সেবা সম্পর্কিত যেকোন তথ্য পেতে ভিজিট করুন আমাদের ওয়েবসাইট, ধন্যবাদ।

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Scroll to Top