অনলাইনে জাতীয় পরিচয় পত্র সংশোধন করুন (খুব সহজে)

অনলাইনে জাতীয় পরিচয় পত্র সংশোধন: জাতীয় পরিচয় পত্র (NID বা National Identity Card), বর্তমান সময়ে এসে এর প্রয়োজনীয়তা যেনো একটু বেশিই উপলব্ধি করছি আমরা। এই লকডাউনের সময়টাতে প্রচুর মানুষ freelancing এর দিকে ঝুঁকেছে, তাই ব্যাংক একাউন্ট ও ইন্টারন্যাশনাল কারেন্সি লেনদেনের জন্য যারা NID এখনো হাতে পায়নি, সবাই ব্যাকুল হয়ে আছে।

এছাড়া পাসপোর্ট, ভিসা, ভোট প্রদান, জমির মালিকানা নির্ধারণ, চাকরি ক্ষেত্রে এমনকি নাগরিকত্ব নির্ধারণ ও হয় এই NID বা জাতীয় পরিচয়পত্রের মাধ্যমেই ।

অনলাইনে জাতীয় পরিচয় পত্র সংশোধন

এই অতি প্রয়োজনীয় জিনিসটাই নিজের হাতে পেতে প্রচুর সময় তো নষ্ট হয় ই, বেশ বেগও পোহাতে হয়। তার উপর যদি কোনো কারণে তাতে কোনো তথ্য ভুল আসে, তা সংশোধন করতে কতটা ভোগান্তি হয়, তা সবারই জানা। কখনো কখনো তো টাকা ও খরচ হয় অনেক। তবে, আজকে আমি আপনাদের বলবো কিভাবে খুব সহজে ঘরে বসেই NID Service এর মাধ্যমে জাতীয় পরিচয়পত্র সংশোধন, আবেদন, সার্চ ও ডাউনলোড করতে পারবেন।

এই ইন্টারনেট এর যুগে সবকিছুই আমাদের একেবারে হাতের কাছে চলে এসেছে। যে কোনও তথ্যজানার জন্য শুধু সঠিক (website) ওয়েবসাইট টি খুঁজে বের করতে হয়। তাই জাতীয় পরিচয়পত্র সংক্রান্ত সব তথ্য জানতে নির্বাচন কমিশন এর ওয়েবসাইট এ যেতে হবে। নিচে তার লিঙ্ক টি অ্যাড করে দেয়া হয়েছে।
https://services.nidw.gov.bd

অনলাইনে এনআইডি সংশোধন করার নিয়ম

NID Service
NID Service

নির্বাচন কমিশন এর ওয়েবসাইট এ কারা রেজিস্টার করে সেবা গ্রহণ করতে পারবে?

যাদের বয়স ১৮ বা তার বেশি, যারা ভোটার হয়েছেন, তারা তাদের জাতীয় পরিচয়পত্র বিষয়ক যে কোনো তথ্য ও সেবা পেতে রেজিস্টার করতে পারবেন।

ওয়েবসাইটটি তে ঢুকে আপনি মেনু বার এ অনেকগুলো অপশন দেখতে পাবেন। আপনার প্রয়োজন অনুযায়ী অপশনে ক্লিক করবেন। প্রথমেই আসি আপনি যদি নতুন ভোটার হোন বা জাতীয় পরিচয়পত্রের জন্য নিবন্ধন অথবা আবেদন করতে চান, তাহলে কি করবেন।

জাতীয় পরিচয় পত্র নিবন্ধন বা আবেদন করার নিয়ম

আপনার বয়স যদি ১৮ বা তার উপরে হয়, তবেই কেবল আপনি জাতীয় পরিচয়পত্রের জন্য আবেদন বা নিবন্ধন করতে পারবেন। আপনি হয়তো জেনে থাকবেন যে, নিবন্ধনের জন্য এজেন্ট রা বাড়ি বাড়ি গিয়ে নতুন ভোটার দের তথ্য সংগ্রহ করে থাকেন। এক্ষেত্রে আপনি এজেন্ট এর আসা পর্যন্ত অপেক্ষা করতে পারেন অথবা নির্বাচন কমিশন এর ওয়েবসাইট থেকে নিবন্ধন ফরম পূরণ করতে পারেন।

নতুন ভোটার আইডি কার্ড করার নিয়ম

নির্বাচন কমিশন এর ওয়েবসাইট এ ঢোকার পর, নতুন নিবন্ধন অপশনে ক্লিক করলে আপনার সামনে একটি নির্দেশনা পেইজ ওপেন হবে। নির্দেশনা গুলো পড়ে পেইজ এর নিচে ডান দিকে আমি রাজি ও নিবন্ধন ফরম পূরণ করতে চাই অপশনে ক্লিক করুন। পুনরায় কিছু গুরুত্বপূর্ণ নির্দেশনা দেখতে পাবেন। ভোটার আইডি কার্ড তৈরি করতে ভালোভাবে তা পড়ে ও বুঝে নিচের আবেদন করুন অপশনটিতে গেলে একটি ছোট্ট ফরম দেখতে পাবেন। ফরমটি তে আপনার পুরো নাম ইংরেজিতে এবং জন্ম তারিখ লিখতে হবে। এরপর ক্যাপচা ভ্যারিফিকেশন টি সম্পূর্ণ করে পরের পেইজ এ যান।

আরও পড়ুন- মাত্র ৫ মিনিটে NID কার্ডের অসুন্দর ছবি পরিবর্তন করবেন যেভাবে

জাতীয় পরিচয় পত্র অনুসন্ধান
জাতীয় পরিচয় পত্র অনুসন্ধান

এভাবে তিনটি ধাপে আপনার ব্যাক্তিগত তথ্য, বর্তমান ও স্থায়ী ঠিকানা ও অন্যান্য তথ্য বাংলা ইউনিকোডে লিখে তা pdf file আকারে save করুন। মনে রাখবেন, তথ্যগুলো অত্যন্ত সাবধানে পূরণ করতে হবে, নয়তো আপনার জাতীয় পরিচয়পত্রে ভুল তথ্য চলে আসবে। প্রয়োজনে সকল তথ্য পূরণের পর (preview) প্রিভিউ করে পুনরায় যাচাই করে নেবেন। এবার pdf file টি প্রিন্ট করে নিকটস্থ নির্বাচন অফিসে জমা দিয়ে আসুন।

নির্বাচন কমিশন এর ওয়েবসাইট এ কারা একাউন্ট রেজিস্টার করবেন?

নির্বাচন কমিশন এর ওয়েবসাইট এ রেজিস্ট্রেশন করতে পারবেন –

  • যারা নিবন্ধন করেছেন এবং ছবিও তুলেছেন কিন্তু এখনও NID card হাতে পান নি, তারা সর্বশেষ অবস্থা জানার জন্য। অর্থ্যাৎ পরিচয়পত্র তৈরি হয়েছে কিনা তা সার্চ (search) করার জন্য।
  • স্মার্ট কার্ড (smart card) পাওয়ার তারিখ জানার জন্য।
  • কোনো প্রয়োজনে অনলাইন পরিচয়পত্র ডাউনলোড করার জন্য।
  • জাতীয় পরিচয়পত্রে কোনো ভুল থাকলে তা সংশোধনের জন্য।
  • এছাড়া জাতীয় পরিচয়পত্র সংক্রান্ত যে কোনো প্রয়োজনে।

একাউন্ট রেজিস্টার করার জন্য নিচের লিঙ্কে প্রবেশ করুন অথবা নির্বাচন কমিশনের ওয়েবসাইটে ঢুকে রেজিস্টার অপশনে ক্লিক করতে পারেন।
https://services.nidw.gov.bd/registration

নির্বাচন কমিশন এর ওয়েবসাইট এ একাউন্ট রেজিস্টার করার নিয়ম

রেজিস্টার পেইজ এ ঢুকে নিচে ডান দিকে রেজিস্টার ফরম পূরণ করতে চাই অপশন ক্লিক করুন। এবার রেজিস্টার করুন অপশনে গিয়ে আপনার জাতীয় পরিচয়পত্রের নাম্বার (NID number) অথবা রশিদে থাকা ফরম নাম্বার ও জন্ম তারিখ এর অংশ টুকু পূরণ করুন।

অনলাইনে এনআইডি সংশোধন

অনলাইনে জাতীয় পরিচয় পত্র বের করা
জাতীয় পরিচয় পত্র নিবন্ধন

এরপর আপনি নতুন একটি পেইজ এ প্রবেশ করবেন। যেখান থেকে আপনাকে আপনার বর্তমান ও স্থায়ী ঠিকানা select করে পরবর্তী পেইজে যান। সেখানে আপনার ফোন নাম্বার টি টাইপ করুন। sms এর মাধ্যমে একটি verification code আসবে আপনার ফোনে। কোড টি টাইপ করে verify করে নিতে হবে। 

জাতীয় পরিচয় পত্র সংশোধন ফরম ডাউনলোড

এবার আপনাকে একটি অ্যাপ (app) ডাউনলোড করে নিতে হবে, NID Wallet. Playstore থেকে খুব সহজেই অ্যাপটি ডাউনলোড করে নিতে পারবেন। scan লিখা অপশন এ ক্লিক করে আপনার face varify করে নিলেই, পরিচয়পত্রের জন্য তোলা ছবিটি সহ আপনার প্রোফাইল তৈরি হয়ে যাবে (যদি আপনার জাতীয় পরিচয়পত্র তৈরি হয়ে থাকে তবে)। 

ভোটার আইডি কার্ড জন্ম তারিখ সংশোধন
Online nid process

এভাবে মাত্র কয়েকটি সহজ ধাপে আপনি আপনার জাতীয় পরিচয়পত্র সার্চ করতে পারবেন অথবা তৈরি হয়েছে কিনা জানতে পারবেন। যদি এমন হয় যে, আপনার পরিচয়পত্রটি তৈরি হয়ে গেছে, কিন্তু এখনো হতে পান নি, তবে প্রয়োজন হলে এটি আপনি আপনার প্রোফাইল (profile) থেকেই ডাউনলোড করে নিতে পারবেন।

নির্বাচন কমিশনের অভিযোগ কেন্দ্রের ওয়েবসাইট এ রেজিস্ট্রেশন করার নিয়ম

আচ্ছা, যদি আপনার জাতীয় পরিচয়পত্রে কোনো ভুল থাকে তখন তা সংশোধন করবেন কি করে? অথবা যদি কোনো কারণে NID হারিয়ে বা নষ্ট হয়ে যায়? চিন্তার কোনো কারণ নেই। এর সমাধান ও আপনি অনলাইনেই পেয়ে যাবেন। তবে তার জন্য আপনাকে অন্য একটি ওয়েবসাইট এ registration করে নিতে হবে। সেটি হলো নির্বাচন কমিশন এর অভিযোগ কেন্দ্রের ওয়েবসাইট।

http://grs.gov.bd/register.do এই লিঙ্ক এ প্রবেশ করে আপনি একটি ফরম পূরণ করেই রেজিস্টার করে নিতে পারবেন।

জাতীয় পরিচয়পত্র সংশোধন এর নিয়ম

আপনার জাতীয় পরিচয়পত্রে যদি কোনো তথ্য ভুল থেকে থাকে, তা অনলাইনে জাতীয় পরিচয় পত্র সংশোধন এর জন্য আপনাকে নির্বাচন কমিশন ওয়েবসাইটে যেতে হবে প্রথমে। এখন ডাউনলোড অপশনে গিয়ে সেখান থেকে আইডি কার্ড সংশোধনের জন্য আবেদন ফর্ম অপশনে ক্লিক করলে ফরমটি automatic ডাউনলোড হয়ে যাবে। ফরমটি সঠিক ভাবে পূরণ করে তা অভিযোগ কেন্দ্রের ওয়েবসাইটের মেইল করে পাঠাতে হবে।

অভিযোগ কেন্দ্রের ওয়েবসাইটের মেইল আইডি : assist4grs@gmail.com
প্রয়োজনে call করেও তথ্য জানতে পারেন। অভিযোগ কেন্দ্রের ওয়েবসাইটের ফোন নাম্বার : +88029113781

এছাড়াও, ফেসবুক পেইজ এর মাধ্যমে ও আপনার প্রয়োজন জানাতে পারেন তাদের। facebook page : National ID Card- জাতীয় পরিচয়পত্র
এক্ষেত্রে facebook page এ আপনার সমস্যা গুলো সুন্দর ভাবে গুছিয়ে লিখে তাদের message করতে হবে।

জাতীয় পরিচয়পত্র হারিয়ে বা নষ্ট হয়ে গেলে করণীয়

এবার আসা যাক আপনার জাতীয় পরিচয়পত্র হারিয়ে বা নষ্ট হয়ে গেলে কি কর হারানো ভোটার আইডি কার্ড ডাউনলোড করবেন।
নির্বাচন কমিশন এর ওয়েবসাইট এর ডাউনলোড অপশন থেকে হারানো আইডি কার্ড উত্তোলনের আবেদন ফর্ম অপশনে click করে ফরম টি ডাউনলোড করে নিন। একই ভাবে অভিযোগ কেন্দ্রের ওয়েবসাইটে মেইল করে পাঠিয়ে দিন।

স্মার্ট কার্ড (smart card) কবে পাবেন জানার জন্য করণীয়

আপনার smart card বিতরণের তারিখ জানার জন্য নির্বাচন কমিশন এর ওয়েবসাইটের স্মার্ট কার্ড বিতরণের তথ্য অপশন থেকে জানতে পারবেন। আপনার NID card number, জন্ম তারিখ এবং একটি captcha verification করে সহজেই তারিখ ও সময় সূচি জানতে পারবেন। এছাড়া, 105 এ কল করে সর্বশেষ অবস্থা জানতে পারেন যে কোনও নাম্বার থেকে। SMS এর মাধ্যমে ও পেতে পারেন সময় সূচির তথ্য।

SMS করার নিয়ম: আপনার মোবাইলের মেসেজ অপশন এ গিয়ে টাইপ করুন
SC পুরোনো NID number এরপর পাঠিয়ে দিন 105 এই নম্বরে।

আশা করছি উপরের তথ্য থেকে আপনার এখন নিজেরাই খুব সহজে জাতীয় পরিচয় পত্র নিবন্ধন, সার্চ, অনলাইনে জাতীয় পরিচয় পত্র সংশোধন ও হারানো ভোটার আইডি কার্ড ডাউনলোড করতে পারবেন।

Show More

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button