অনলাইন থেকে ইনকাম করার উপায়

৩০টি অনলাইন ইনকাম করার উপায় ২০২৩

আপনাদের সবাইকে স্বাগতম ‘অনলাইন ইনকাম করার উপায় ২০২৩’ আর্টিকেলে। আপনারা যদি জানতে চান ‘অনলাইনে আয় করার নিশ্চিত উপায় ২০২৩’ তাহলে এই লেখাটি সম্পন্ন পড়ুন।

এই আধুনিক যুগে এমন এমন স্থানে কর্মসংস্থান হয়েছে যা আজ থেকে ২০ বছর আগেও মানুষ কল্পনা করতে পারত না। এখন মানুষ ঘরে বসে ‘অনলাইন থেকে ইনকাম’ করতে পারে। শারীরিকভাবে অক্ষম মানুষেরাও তার বুদ্ধিমত্তা কাজে লাগিয়ে ‘অনলাইনে টাকা ইনকাম‘ করতে পারে। এখন বিশ্ব অনেক এগিয়ে গেছে। এখন এমন অনেক কাজ সৃষ্টি হয়েছে যেগুলো অনলাইন ছাড়া সম্ভব নয়। তাই বিপুল পরিমাণ কর্মসংস্থানের সুযোগ তৈরি হয়েছে অনলাইনে। ‘অনলাইনে আয় করা নিশ্চিত উপায় ২০২৩’ সম্পর্কে জানতে এই লেখাটি সম্পূর্ণ পড়ুন।

‘অনলাইন থেকে আয় করার উপায় ২০২৩’ এ আর্টিকেলে ৩০ টি ‘অনলাইন থেকে ইনকাম করার উপায়’ বলা হয়েছে। আপনারা আপনাদের যোগ্যতা ও দক্ষতা অনুসারে এখান থেকে যেকোনো একটি নিয়মে ‘অনলাইন ইনকাম’ করতে পারবেন।

(১) ব্লগিং করে ইনকাম | অনলাইন ইনকাম করার উপায় ২০২৩

আপনারা যারা ‘অনলাইন থেকে ইনকাম করার উপায়’ খুঁজতে এই লেখাটি পড়ছেন, এটাও কিন্তু এক প্রকার ব্লগিং। আপনারাও ‘ব্লগিং করে অনলাইনে টাকা ইনকাম‘ করতে পারবেন। এর জন্য প্রয়োজন হবে একটি ওয়েবসাইটের। যেখানে আপনি আপনার পছন্দ অনুসারে বিভিন্ন লেখালেখি পোস্ট করতে পারবেন। অবশ্য যে বিষয়ে আপনার আগ্রহ বেশি সেই বিষয়েই লেখালেখি করবেন। যত বেশি মানুষ আপনার ওয়েবসাইটে ভিজিট করবে তত বেশি টাকা উপার্জন করবেন। ব্লগিং করার জন্য আপনাকে আহামরি শিক্ষিত হতে হবে না। আপনি যদি ওয়েবসাইট তৈরি করার সম্পর্কে সম্মুখ জ্ঞান রাখেন তাহলে আপনিও একজন ব্লগার হয়ে যাবেন। এখন ব্লগিং করা আরো সহজ। বিভিন্ন ওয়েবসাইট আছে যেখানে আপনি খুব সহজেই ব্লগিং করতে পারবেন।

( ২) ফেসবুক থেকে যেভাবে আয় করবেন | অনলাইন থেকে আয় করার উপায় ২০২৩

‘ফেসবুক থেকে ইনকাম করার উপায়’ আপনাদেরকে বলছি। আপনি যদি ফেসবুক ব্যবহার করতে পারদর্শী হন এবং ভালো মানের ভিডিও তৈরি করতে সক্ষম হন তাহলে আপনিও ‘ফেসবুক থেকে ইনকাম‘ করতে পারবেন। এখন প্রত্যেকের হাতে হাতে মোবাইল। খুব কম মানুষই পাওয়া যাবে যারা স্মার্টফোন ব্যবহার করে অথচ ফেসবুক ব্যবহার করে না। ফেসবুক শুধু চ্যাটিং করার মাধ্যম নয়। এখন এটা একটি বিশাল মার্কেট প্লেসে পরিণত হয়েছে।

এখানে বিভিন্ন পণ্যের মার্কেটিং করা হয়। আপনিও চাইলে এখানে আপনার পণ্যের মার্কেটিং করতে পারেন। অথবা বিনোদনমূলক ভিডিও তৈরি করে আপনার পেজে পোস্ট করতে পারেন। প্রাথমিক দিকে হয়তো আপনার এত বেশি ফলোয়ার নাও হতে পারে। এর ফলে আপনি আপনার প্রচেষ্টা থামাবেন না। আপনি আপনার কাজে লেগে থাকুন দেখবেন সাফল্য আসবেই।

(৩) ছবি ও ফুটেজ বিক্রি করে অনলাইন ইনকাম | অনলাইন থেকে আয় করার উপায় ২০২৩

ছবি ও ফুটেজ বিক্রি করে অনলাইনে ইনকাম কিভাবে করবেন তা নিয়ে ভাবছেন? যদি আপনি অনলাইনে আপনার তোলা কোনো ছবি বিক্রি করতে চান, তাহলে তার জন্য আছে বিভিন্ন ধরণের ইমেজ শেয়ারিং বা স্টক ইমেজ সাইট। এই সাইটগুলোতে আপনি আপনার ছবি বিক্রয় করবার জন্য আপলোড করতে পারবেন। কিন্তু ছবিগুলো অবশ্যই হতে হবে ভালো মানের এবং হাই রেজুলেশনের।

এই ধরণের ওয়েবসাইটগুলোতে কাজ করতে হলে প্রথমে আপনাকে ওই ওয়েবসাইটে একাউন্ট খুলতে হবে, অতঃপর আপনার তোলা ছবিগুলো আপলোড দিতে হবে। এরপর আপনার ছবির কোয়ালিটি, রেজুলেশন ইত্যাদি বিষয়য়াদি যাচাই-বাছাই করার পর আপনার প্রোফাইলটি ওই ওয়েবসাইট অনুমোদন করবে।

আপনার প্রোফাইল অনুমোদিত হলে পর আপনি সেখানে আপনার তোলা ছবি আপলোড দিতে পারবেন। তবে এডমিন আগে আপনার আপলোড করা প্রত্যেকটি ছবি যাচাই করবে, এরপর ছবি গুলো আপলোড হবে এবং অন্যান্যরা আপনার ছবি দেখতে পারবে।

ছবির মাধ্যমে টাকা ইনকাম করার কিছু ওয়েবসাইট:

• GettyImages
• Dreamstime
• Shutterstock
• Fotolia
• iStock

অনেক বড় বড় মাল্টিন্যাশনাল কোম্পানি আছে যারা নানান কারণে বিভিন্ন ধরণের ছবি সংগ্রহ করে থাকে। এগুলো তারা বিভিন্ন কাজে ব্যবহার করে। তাই তখন তারা এই ধরনের ওয়েবসাইট থেকে ছবি ক্রয় করে নিয়ে তাদের কাজে ব্যবহার করে। ফটোগ্রাফারদের এই ওয়েবসাইটগুলো প্রতি সেলের জন্য সাধারণত ৩০ থেকে ৭০% কমিশন দিয়ে থাকে।

(৪) অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং করে যেভাবে আয় করবেন | অনলাইন থেকে আয় করার উপায় ২০২৩

অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং করে কিভাবে ইনকাম করবেন? ওয়েবসাইট তৈরি করে অনলাইন ইনকাম (Online Income) করার একটি জনপ্রিয় মাধ্যম হচ্ছে অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং।

অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং কী?

এই অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিংয়ের মাধ্যমে আপনি বস্তুত একজন থার্ড পার্টি হিসেবে আপনার ওয়েবসাইটে অন্যান্য প্রতিষ্ঠানের পণ্যের প্রমোশন করে সেগুলো বিক্রয় করার চেষ্টা করা। কোনো কোম্পানির প্রোডাক্ট বিক্রি করে দিলে ওই কোম্পানির পণ্য সেলের উপর সাধারণত ১০% থেকে ৫০% অবধি কমিশন দিয়ে থাকে।

যদি আপনার ভালো মানের একটি ওয়েবসাইট থেকে থাকে এবং সেটায় ভালো সংখ্যক ভিজিটর আসে, তাহলে আপনি চাইলেই যে কোনো প্রতিষ্ঠানের সাথে চুক্তিবদ্ধ হয়ে অ্যাফিলিয়েট লিংক বসিয়ে প্রোডাক্ট সেল করে অনলাইন ইনকাম করতে পারবেন।

এ্যমাজন অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং বাংলাদেশে অনেক জনপ্রিয় একটি ‘অনলাইনে ইনকাম করার উপায়’। এই অ্যাফিলিয়েট ওয়েবসাইটগুলো এ্যমাজনের বিভিন্ন পণ্যের গুণাগুণ গুলো তুলে ধরে সেটা সেল করবার চেষ্টা করে। এবং পণ্য বিক্রি হলেই পেয়ে যাবেন কমিশন!

আপনার অনলাইন প্লাটফর্ম যেমন ধরনেরই হোক না কেন, অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিংয়ের মাধ্যমে অনলাইনে ইনকাম করা সম্ভব। ওয়েবসাইট, ইউটিউব চ্যানেল, ফেসবুক পেইজ, এমনকি ইনস্টাগ্রামের মাধ্যমেও অ্যাফিলিয়েট অনলাইন ইনকাম করা সম্ভব।

(৫) ড্রপশিপিং ব্যবসা করে অনলাইনে টাকা ইনকাম | অনলাইন থেকে ইনকাম করার উপায় ২০২৩

আপনারা যারা ‘অনলাইনে টাকা ইনকাম ২০২৩’ করতে চাচ্ছেন। তারা ড্রপশিপিং ব্যবসা করতে পারেন। এই ব্যবসায় বড় পুঁজি লাগে না। এটাতে প্রয়োজন আপনার ধৈর্য ও সময়। এই ড্রপশিপিং ব্যবসায় শপিফাই shopify খুবই সাহায্যকারী। shopify এর সাহায্যে লক্ষ লক্ষ মানুষ তার জীবিকার ব্যবস্থা করেছে। অনলাইনে ড্রপ শিপিং ব্যবসা যদি করতে টাকা ইনকাম করতে হলে আপনাকে আগে বুঝতে হবে ড্রপশিপিং ব্যবসা কী?

ড্রপ শিপিং ব্যবসা হচ্ছে একটি বিনা পুঁজির ব্যবসা। অন্যের দোকানের প্রোডাক্ট বিজ্ঞাপন আপনি আপনার দোকানে কিছুটা মূল্যবৃদ্ধি করে সাজিয়ে রাখবেন। খদ্দের আপনার দোকানে এসে সেই পণ্য দেখে অর্ডার দেবে। আপনি সে পণ্যটি অর্ডার দেবেন মূল বিক্রয় প্রতিষ্ঠানকে এবং ডেলিভারির ঠিকানা দিয়ে দিবেন কাস্টমারের। অতঃপর কাস্টমার প্রেমেন্ট করলে মূল বিক্রেতাকে মূল্য পরিশোধ করে বাকি যে টাকা থাকবে সেটাই আপনার লাভ।

সংক্ষেপে বললে ড্রপ শিপিং ব্যবসা হচ্ছে এক প্রকার ব্রোকার ব্যবসা। এর মাধ্যমে আপনি খুব সহজেই অনলাইনে টাকা ইনকাম করতে পারবেন।

এর সুবিধা হচ্ছে, এখানে ইনকাম করতে হলে আপনার কোনো বাস্তবিক দোকানের প্রয়োজন হবে না। ইন্টারনেটের সাহায্যে আপনি ভার্চুয়াল দোকান তৈরি করবেন।

(৬) রিভিউ করে অনলাইন ইনকাম | অনলাইন থেকে আয় করার উপায় ২০২৩

আপনি যদি কোন বিষয়ে এর গুণাগত মান সম্পর্কে ভালো জ্ঞান রাখেন তাহলে নিশ্চয় ওই জিনিসটা সম্পর্কে রিভিউ খুব সহজে দিতে পারবেন। এমন কিছু ওয়েবসাইট আছে বিশেষ কিছু জিনিসের রিভিউ সংগ্রহ করে থাকে। যেমন ধরুন সংগীত। আপনি যদি ভালো সঙ্গীতজ্ঞ হন এবং সংগীতের ব্যাপারে আপনার ভালো জানাশোনা থাকে তাহলে আপনিও রিভিউ দিয়ে অনলাইন ইনকাম করতে।

শুধুমাত্র গান নয়, আপনি বিভিন্ন পণ্যের রিভিউ দিতে পারবেন। যেমন ধরুন বই কিংবা ইলেকট্রিক ডিভাইস। আপনার দেওয়া ইতিবাচক রিভিউ শুনে অন্যান্য কাস্টমার আকর্ষিত হবে ওই পণ্যটি ক্রয় করতে। আপনার রিভিউ গুলো ক্রয় করে এমন কিছু ওয়েবসাইটের নাম হলো musicxray, current.us , radioearn.

(৭) ওয়েবসাইট তৈরি করে অনলাইনে টাকা আয় | অনলাইন থেকে আয় করার উপায় ২০২৩

আজকাল বিভিন্ন কাজের জন্য মানুষের ওয়েবসাইটের প্রয়োজন হয়। তাই যদি আপনি ওয়েবসাইট তৈরি করার রাখেন তাহলে এটিই আপনার জন্য হতে পারে একটি ‘অনলাইনে ইনকাম করার উপায়’। আপনি ফ্রিল্যান্সার হয়ে অন্যের জন্য ওয়েবসাইট তৈরি করে ‘অনলাইন ইনকাম’ করতে পারেন, কিংবা নিজে ওয়েবসাইট তৈরি করে সেটা সেল করতে পারেন। এক্ষেত্রে আপনার ওয়েবসাইটে যদি ভালো ট্রাফিক অর্থাৎ ভালো সংখ্যক ভিজিটর থাকে, তাহলে আপনি ওয়েবসাইটের দামটাও বেশি পাবেন।

তাছাড়া আপনি ওয়েবসাইটে গুগল এডস্ ব্যবহার করে ‘অনলাইনে টাকা ইনকাম’ করতে পারবেন। একটি সাধারণ ওয়েবসাইট তৈরি করার জন্য বেশি কিছু দরকার হয় না। শুধু ডোমেইন ও হোস্টিং হলেও ওয়েবসাইট তৈরি করা যায়। এর জন্য আপনাকে প্রথমে একটি হোস্টিং ক্রয় করতে হবে এবং একটি ডোমেইন রেজিস্ট্রেশন করতে হবে। এরপর ওয়েবসাইট তৈরি করতে হবে। ওয়েব সাইট তৈরির জন্য বিশেষ এক কোড রয়েছে। যা চাইলে আপনি কিছুদিনের মধ্যেই শিখতে পারবেন। এভাবেই আপনি অনলাইনে টাকা ইনকাম করতে পারবেন।

(৮) ইনস্টাগ্রাম থেকে যেভাবে ইনকাম করবেন | অনলাইন থেকে আয় করার উপায় ২০২৩

তথ্য প্রযুক্তির এই যুগে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম গুলো খুবই সক্রিয়। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম গুলোর মধ্যে instagram খুবই জনপ্রিয়। অনেকেই আছেন ইনস্টাগ্রামে ছবি আপলোড দিতে পছন্দ করেন। আপনি যদি ইনস্টাগ্রাম ব্যবহারকারী হয়ে থাকেন এবং আপনার ফলোয়ার সংখ্যা যদি অনেক হয় তাহলে আপনিও instagram এ টাকা ইনকাম করতে পারবেন।

ইনস্টাগ্রামে কীভাবে টাকা ইনকাম করা যায়?

মূলত আপনি সরাসরি ইনস্টাগ্রাম থেকে টাকা পাবেন না। বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান আপনার মাধ্যমে তাদের পণ্যের প্রচারণা। যেমন ধরুন কোনো ইলেকট্রনিক্স ডিভাইস কিংবা ইউটিউব চ্যানেল অথবা বই, ফুড আইটেম ইত্যাদি। আপনি তাদের পণ্যের প্রমোশন করলে আপনার ফলোয়ার সংখ্যা অনুযায়ী তারা আপনাকে টাকা পেমেন্ট করবে। তবে এর জন্য প্রয়োজন আপনার অনেক সংখ্যক ফলোয়ার। ফলোয়ার বৃদ্ধির জন্য আপনি ভালো ভালো স্থানের ছবি দিতে পারেন। অথবা ভালো ভালো জিনিস শেয়ার করতে পারেন।

(৯) কনটেন্ট রাইটিং অনলাইনে টাকা ইনকাম | অনলাইন থেকে আয় করার উপায় ২০২৩

আমরা অনেকেই আছি যারা লেখালেখি করতে ভালোবাসি। কিন্তু আপনি কি জানেন লেখালেখি করেও ‘অনলাইনে টাকা ইনকাম’ করা যায়। আপনি যদি লেখালেখিতে পারদর্শী হন, তাহলে অনলাইন প্ল্যাটফর্মগুলোতে লেখালেখি করা আপনার জন্য একটি ‘অনলাইনে ইনকাম করার উপায়’ হতে পারে। আর্টিকেল লিখে আয় করতে চাইলে নিজেই ডোমেইন হোস্টিং ক্রয় করে ব্লগ সাইট তৈরি করে লিখতে পারেন। অথবা ওয়ার্ডপ্রেস বা টাম্বলার প্ল্যাটফর্মে বিনামূল্যে কনটেন্ট লেখা যায়।

আপওয়ার্ক, ফাইভারসহ বিভিন্ন ফ্রিল্যান্সিং প্লাটফর্মে কনটেন্ট লেখকদের অনেক চাহিদা আছে। ইংরেজিতে লেখার দক্ষতা থাকলে ওই ফ্রিল্যান্সিং প্লাটফর্মগুলোতে কাজ পাওয়া আপনার জন্য অনেক সহজ হবে। কাজের মানের ভিত্তিতে প্রতি ১০০০ ওয়ার্ডের জন্য কনটেন্ট রাইটাররা ৫ থেকে ৫০ ডলার পর্যন্ত পেয়ে থাকে।
এছাড়া আপনি বিভিন্ন অনলাইন নিউজ পোর্টালে লেখালিখি করে ‘অনলাইনে টাকা আয় করার উপায়’ করতে পারেন।

(১০) ডাটা এন্ট্রি করে আয় | অনলাইন থেকে আয় করার উপায় ২০২৩

এনালগ যুগে খাতা/ কাগজে অফিসের বিভিন্ন তথ্য গুলো সংরক্ষণ করা লাগতো। এভাবে তথ্য সংরক্ষণ করা খুবই সময়সাপেক্ষ ও অনিরাপদ। কিন্তু এই ডিজিটাল যুগে তথ্য সংগ্রহ অনেক সহজ হয়ে গেছে। কম সময়ের মধ্যে তথ্য বা ডাটা গুলো সংরক্ষণ করা যায়।

ডাটাগুলোকে একটি কম্পিউটার কোনো সফটওয়্যারের সাহায্যে সংযোজন বা আপডেট করাকে বলা হয় ডেটা এন্ট্রি। যাদের দ্রুতগতিতে টাইপিং করার দক্ষতা আছে, তারা এই ধরণের কাজের মাধ্যমে ‘অনলাইনে টাকা ইনকাম’ করতে পারবেন। এই কাজের চাহিদা অনেক বেশি। চাইলে আপনি এভাবে অনলাইনে টাকা ইনকাম করতে পারবেন।

ইন্টারনেটের এই ধরনের কাজের জন্য অনেক ফ্রিল্যান্সিং সাইট রয়েছে যেমন: Fiverr, Freelancer, Guru যেখানে আপনারা ডাটা এন্ট্রির সাথে সম্পৃক্ত কাজ পাবেন।

(১১) ই কমার্স ব্যবসা কিভাবে করবেন | অনলাইন থেকে আয় করার উপায় ২০২৩

ব্যবসা করা এখন আগের চেয়ে আরো অনেক সহজ হয়ে গেছে। মানুষজনের কর্মব্যস্ত জীবনে মার্কেটে গিয়ে জিনিসপত্র কেনা অনেক সময় সম্ভব হয়ে ওঠে না। এছাড়া ঘরে বসে থেকে পণ্য পাওয়া যায় এখন। তাই লোকেরা অনলাইনে জিনিসপত্র কেনাকাটা করে। আপনি এই সুযোগটা কাজে লাগিয়ে অনলাইনে কি কমার্স ব্যবসা শুরু করতে পারেন।

এই ব্যবসাতে মোটামুটি ভালোই লাভ আছে। যেহেতু এটাতে দোকান ভাড়া দেওয়া লাগে না তাই আপনি কম পুঁজিতেই এই ব্যবসা করে ‘অনলাইন থেকে ইনকাম’ করতে পারবেন। এটা আপনি ফেসবুক অথবা ওয়েবসাইট খুলেও করতে পারবেন। মানুষের চাহিদার কথা বিবেচনায় রেখে পণ্যগুলো ন্যায্য মূল্যে যদি বিক্রি করেন তাহলে আপনার ব্যবসা প্রতিষ্ঠান জনপ্রিয়তা লাভ করবে। বাংলাদেশে এমনই কয়েকটি ই-কমার্স ওয়েবসাইট রয়েছে যেমন: দারাজ, আজকেরডিল, রকমারি।

(১২) ইউটিউব ভিডিও তৈরি করে টাকা ইনকাম করুন | অনলাইন থেকে ইনকাম করার উপায় ২০২৩

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমের মধ্যে ভিডিও শেয়ার করার সবচেয়ে বড় মাধ্যম হচ্ছে ইউটিউব। বিশ্বের কোটি কোটি মানুষ এই ইউটিউব ব্যবহার করে। এত বিশাল সংখ্যক এর ভিজিটর আছে বিধায় এটার মাধ্যমে খুব সহজে বিজ্ঞাপন প্রচার করা যায়। আর সেই সুযোগটা কাজে লাগিয়ে সাধারণ মানুষেরাও অনেক টাকা ইনকাম করতে পারবে। আপনিও চাইলে youtube এ ভিডিও তৈরির মাধ্যমে টাকা ইনকাম করতে পারেন।

এর জন্য প্রয়োজন হবে একটি ইউটিউব একাউন্ট থাকা। সেখানে আপনি যদি মানসম্মত ভিডিও দেন এবং সেই ভিডিও লোকজনেরা দেখে তাহলে আপনিও অনলাইনে টাকা ইনকাম করতে পারবেন।

কোনো একটি ইউটিউব চ্যানেলে যদি 1000 সাবস্ক্রাইবার হয় তাহলে সেই চ্যানেলটি মনিটাইজ করা যায়। এরপর আপনার ভিডিওর ভিজিটর এবং কত ঘন্টা ভিউ হয়েছে সেটার উপর ভিত্তি করে আপনাকে টাকা প্রদান করা হয়। আপনার ভিডিও যত মান-সম্মত হবে এবং দর্শকেরা উপভোগ করবে ততই আপনার চ্যানেল গ্রো আপ করবে। তাই আপনারা চাইলে youtube এর মাধ্যমে অনলাইনে টাকা ইনকাম করতে পারবেন।

(১৩) মিউজিক বিক্রি করে আয় | অনলাইন থেকে আয় করার উপায় ২০২৩

আপনাদের অনেকেই আছেন যারা বাদ্যযন্ত্র ভালো বাজাতে পারে। এছাড়া অনেকেই আছেন যারা কম্পিউটারের মাধ্যমে বিভিন্ন ধরনের মিউজিক তৈরি করেন। আপনি জানলে অবাক হবেন যে এই মিউজিক বিক্রি করেও আপনি অনলাইনে টাকা ইনকাম করতে পারবেন।

বিভিন্ন ধরনের কোম্পানি রয়েছে যারা তাদের প্রতিষ্ঠানের বিজ্ঞাপনের জন্য অথবা কিছু ইউটিউবার বা টিভি চ্যানেল তাদের ভিডিওর ব্যাকগ্রাউন্ড মিউজিক অথবা বিভিন্ন শর্ট ফিল্ম অথবা টিভি নাটকের জন্যও মিউজিক প্রয়োজন হয়। এ সকল ক্ষেত্রে তারা ক্রয়কৃত মিউজিক ব্যবহার করে। এতে করে কপিরাইট ইস্যু থেকে দূরে থাকা যায়। ভালো মিউজিকের বিপুল চাহিদা রয়েছে অনলাইনে।

আপনি এই চাহিদাকে কাজে লাগিয়ে ‘অনলাইন থেকে টাকা ইনকাম করার উপায়’ করতে পারেন।

(১৪) ইংরেজি শেখানোর মাধ্যমে উপার্জন | অনলাইন ইনকাম করার উপায় ২০২৩

একটা সময় দক্ষিণ এশিয়া অর্থাৎ ভারতবর্ষ, আফগানিস্তান, ইরান এবং মধ্য এশিয়ার অনেক দেশগুলোতে ফারসি ভাষার প্রচলন ছিল। সেই সময় রাষ্ট্রীয় কাজকর্ম ফার্সি ভাষার মাধ্যমে সম্পন্ন করা হতো। কিন্তু বর্তমানে আন্তর্জাতিকভাবে ইংরেজি ভাষা ব্যবহৃত হচ্ছে। আন্তর্জাতিক, কূটনৈতিক যোগাযোগের ভাষা হয়ে উঠেছে ইংরেজি। এই জন্য এই ভাষার অনেক কদর বিশ্বজুড়ে।

আপনি যদি ইংরেজি ভাষায় পারদর্শী হন তাহলে আপনিও অনলাইন থেকে টাকা ইনকাম করতে পারবেন। আপনি অনলাইনে ইংরেজি ভাষা শিক্ষা দেওয়ার কোর্স করাতে পারবেন। এর ফলে একদিক থেকে দেশের শিক্ষার্থীরা অনলাইনে বসে ইংরেজি শিখতে পারবে। অপরদিকে আপনিও কোর্স ফি বাবদ কিছু টাকা ইনকাম করতে পারবেন।

এটা আপনি ভিডিও কনফারেন্স অ্যাপ এর মাধ্যমে হোক অথবা youtube এর মাধ্যমে। যেকোনো মাধ্যম ব্যবহার করে আপনি অনলাইনে ইংরেজি শিক্ষাদান এবং অনলাইনে টাকা ইনকাম করতে পারবেন।

(১৫) ফুড ব্লগিং করে ইনকাম | অনলাইন থেকে আয় করার উপায় ২০২৩

দিন দিন ভোজন রসিকের সংখ্যা বাড়ছে। মানুষজন ভালো খাদ্যের সন্ধানে বিভিন্ন রেস্টুরেন্টে ঘোরাঘুরি করে। অল্প মূল্যে ভালো মানের খাদ্য কে না পেতে চায়। তাই ভোজন রসিকেরা বিভিন্ন ফুড ব্লগিং ভিডিও দেখে। ব্লগে যদি কোন রেস্টুরেন্ট সম্পর্কে ইতিবাচক মন্তব্য পাওয়া যায় তাহলে সেখানেই মানুষজন বেশি যায়।

তবে যারা এই ইতিবাচক বা নেতিবাচক মন্তব্য তারা সাধারণত ইউটিউব ভিডিওর মাধ্যমে তাদের ভিডিও পোস্ট করে। যারা এই ধরনের ভিডিও করে তাদেরকে ফুড ব্লগার বলা হয়। আপনিও চাইলে একজন ভালো ফুড ব্লগার হয়ে উঠতে পারেন।

ফুড ব্লগিং করলে ইউটিউব কোম্পানি থেকে টাকা ইনকাম করতে পারবেন। সেই সাথে রেস্টুরেন্ট মালিকেরাও আপনাকে প্রমোশনের জন্য অর্থ দিয়ে থাকে। আপনি উভয় দিক থেকে টাকা ইনকাম করতে পারবেন। এই কাজটা হচ্ছে আনন্দের কাজ। আনন্দ করার পাশাপাশি অর্থ উপার্জনও হয়ে উঠলো আপনার।

(১৬) গ্রাফিক্স ডিজাইন করে আয় | অনলাইন থেকে ইনকাম করার উপায় ২০২৩

গ্রাফিক্স ডিজাইন করে লক্ষ লক্ষ মানুষ অনলাইন থেকে ইনকাম করছে। দিন দিন গ্রাফিক্স ডিজাইন এর চাহিদা বেড়েই চলছে। কিন্তু সেই চাহিদা মোতাবেক গ্রাফিক্স ডিজাইনার গড়ে উঠছে না। কেননা এটা খুবই দক্ষতা পূর্ণ কাজ। এটা খুবই দক্ষতা সহকারে করতে হয়।

আপনি যদি গ্রাফিক্স ডিজাইনের কাজ জেনে থাকেন তাহলে আপনিও এই কাজের মাধ্যমে অনলাইন থেকে টাকা ইনকাম করতে পারবেন।

গ্রাফিক্স ডিজাইনের কোর্স খুব সহজেই ইউটিউব থেকে নিতে পারবেন। বিভিন্ন কোম্পানি তাদের কোম্পানি বিজ্ঞাপন অথবা লোগো তৈরি প্রয়োজনে বিভিন্ন গ্রাফিক্স ডিজাইনারদেরকে হায়ার করে। আপনি কোনো কোম্পানির হয়ে কাজ করতে পারেন অথবা ফ্রিল্যান্সিংয়ের মতো মুক্তভাবে কাজের অর্ডার নিয়ে কাজ করতে পারেন।

দেশে বিদেশে সর্বক্ষেত্রে এর ব্যাপক চাহিদা রয়েছে। গ্রাফিক্স ডিজাইনের কাজ করতে পারেন এমন কয়েকটি ওয়েবসাইটের নাম Fiverr, 99designs, Envato market

(১৭) রান্নার ব্লগিং করে ইনকাম | অনলাইন থেকে ইনকাম করার উপায় ২০২৩

পৃথিবীতে মানুষ বিভিন্ন ধরনের দক্ষতা নিয়ে জন্মায়। কেউ দক্ষতা শিখে সাফল্য অর্জন করে। তেমনি এক পারদর্শিতা হচ্ছে রান্নার কাজ। অনেকেই আছেন যারা ভালো ভালো খাদ্য প্রস্তুত করতে পারে। তারা চাইলেই খাবারের রেসিপি নিয়ে ভিডিও বানিয়ে অনলাইনে টাকা ইনকাম করতে পারেন।

অনেক মানুষ আছে যারা রান্না করতে জানে না। তারা সরাসরি আপনার ভিডিও দেখে অনেক উপকৃত হতে হবে। বিশ্বের বিভিন্ন দেশে এই ধরনের ভিডিও করে মানুষ হাজার হাজার ডলার উপার্জন করছে। বাংলাদেশেও অনেক মানুষ এ ধরনের ভিডিও তৈরি করে অনলাইনে ইনকাম করার উপায় করেছে। তাহলে আপনি কেন পিছিয়ে থাকবেন?
আপনিও আপনার এই দক্ষতা কাজে লাগিয়ে অনলাইনে আয় করুন।

(১৮) ইউনিক অথবা আনকমন পণ্য বিক্রয় | অনলাইন থেকে আয় করার উপায় ২০২৩

আজকাল মানুষ খুবই সৌখিন হয়ে গেছে। সবাই ঘর সাজাতে কিংবা খাদ্যদ্রব্যে আনকমন জিনিস খোঁজ করে। আপনি মানুষের এই চাহিদাটিকে পুঁজি করে নিজের একটি ব্যবসা গড়ে তুলুন। যেখানে নান্দনিক সৌন্দর্যের বিভিন্ন বস্তু আপনি বিক্রি করবেন। যে জায়গায় যে জিনিসটা নেই সেই জিনিসটার কদর ঐখানে অনেক বেশি।

যেমন ধরুন কক্সবাজারে অনেক সামুদ্রিক মাছ এবং শামুক ঝিনুকের পণ্য সহজলভ্য। কিন্তু ঢাকায় এটা এতটা সহজলভ্য নয়। থাকলেও দাম অনেক বেশি। কিন্তু আপনি যদি কক্সবাজারের ঐ পণ্যটি অল্প দামে ক্রয় করে সীমিত লাভে ঢাকার মানুষজনের কাছে বিক্রি করে তাহলে নিশ্চয়ই আপনার বিক্রেতার সংখ্যা বেড়ে যাবে। শুধুমাত্র শামুক ঝিনুক নয় এমন আরো অনেক বস্তু আছে যেগুলো আপনি বিক্রি করতে পারবেন।

যেমন ধরুন খদ্দের কাপড়, চিনামাটির বাসনপত্র, সিলেটের অরিজিনাল চা পাতা। এছাড়া বিভিন্ন ধরনের আয়ুর্বেদিক জরিবুটি বিক্রি করতে পারেন।

(১৯) সোশ্যাল মিডিয়া একাউন্ট মেনেজমেন্ট করে ইনকাম | অনলাইন থেকে আয় করার উপায় ২০২৩

অন্যের সোশ্যাল মিডিয়া একাউন্ট ম্যানেজমেন্ট করেও ইনকাম করা সম্ভব। বিদেশে অবশ্য বিভিন্ন সেলিব্রেটিদের একাউন্ট ম্যানেজমেন্ট করার জন্য লোক নিযুক্ত করা হয়। বাংলাদেশে অবশ্য এমনটা না হলেও ভিন্ন কাজের অ্যাকাউন্ট ম্যানেজমেন্ট করার লোকের চাহিদা রয়েছে। বাংলাদেশের অনেক এমন উদ্যোক্তা রয়েছে যারা ফেসবুকের মাধ্যমে অর্ডার গ্রহণ করে থাকে।

ফেসবুকে বিভিন্ন মানুষের পণ্য সম্পৃক্ত প্রশ্নের উত্তর দিতে হয়। এত কাজ একজন উদ্যোক্তার পক্ষে করা সম্ভব নয়। তাই উদ্যোক্তাগণ বিশ্বস্ত মানুষের সন্ধান করে থাকে। সেই সাথে মানুষের সাথে কথোপকথন এর দক্ষতা ও টাইপিং এর দক্ষতার প্রয়োজন রয়েছে। আপনি চাইলে এই ধরনের সোশ্যাল ম্যানেজমেন্ট এর কাজ করে অনলাইন থেকে টাকা ইনকাম করতে পারবেন।

(২০) পিওডি সাইট থেকে ইনকাম | অনলাইন থেকে আয় করার উপায় ২০২৩

আপনি যদি কম্পিউটারের মাধ্যমে ডিজাইন করতে জানেন তাহলে আপনার কাজের অভাব হবে না। বাংলাদেশ হাজার হাজার গার্মেন্টস প্রতিষ্ঠান রয়েছে। এছাড়া আছে অনেক টাইলস, সিরামিকের বাসন তৈরীর কারখানা। এ সকল প্রতিষ্ঠানসমূহে প্রতিনিয়ত নতুন নতুন ডিজাইন এর প্রয়োজন হয়।

আপনি যদি একজন ভালো ডিজাইনার হয়ে থাকেন তাহলে আপনি বিভিন্ন ধরনের লোগো, নকশা অংকন করে টাকা ইনকাম করতে পারবেন।

যেমন ধরুন প্রতি বছর আমরা বিভিন্ন ডিজাইনের টি-শার্ট দেখে থাকে। এই ডিজাইনগুলো কিন্তু কোনো না কোনো মানুষ করে। আপনিও এমন একজন ডিজাইনার হয়ে অনলাইনে টাকা ইনকাম করার উপায় করতে পারবেন। তবে ডিজাইনগুলো হতে হবে মান সম্মত। এর জন্য কয়েকটি ওয়েবসাইট রয়েছে যেমন Teespring, cafepress, Zazzle

(২১) গেজেট রিভিউ করে ইনকাম | অনলাইন থেকে আয় করার উপায় ২০২৩

তথ্য প্রযুক্তির এই যুগে প্রতিনিয়ত বাংলাদেশ বিভিন্ন ধরনের গেজেট আসছে। এগুলো বেশিরভাগই চীন থেকে আমদানি হয়। এমন এমন আশ্চর্যজনক গেজেট বাজারে এসেছে যেগুলো সম্পর্কে মানুষ কখনো কল্পনাই করতে পারত না। যেমন ধরুন পকেটে রাখা যায় এমন ধরনের ছোট প্রিন্টারও বাজারে এসেছে।

এই প্রিন্টারের মার্কেটিং নিশ্চয়ই কেউ না কেউ করেছে। মার্কেটিং করার জন্য গ্রাহকের রিভিউ খুবই দরকার। আপনার একটি ইতিবাচক রিভিউ গ্যাজেটের প্রোমোশনের জন্য অনেক মূল্যবান। আপনি যদি ইউটিউবার হয়ে থাকেন তাহলে আপনি গেজেটের রিভিউ করে ইনকাম করতে পারবেন।

প্রাথমিক অবস্থায় ছোট খাটো গ্যাজেট গুলো আপনার চিনতে হবে। কিন্তু আপনার ফলোয়ারের সংখ্যা যদি বৃদ্ধি পায় তাহলে কোম্পানি থেকে আপনাকে ফ্রি গ্যাজেট গুলো দেওয়া হবে। সেই সাথে রয়েছে উপযুক্ত সম্মানী।

(২২) পরামর্শ দাতা হয়ে টাকা ইনকাম করুন | অনলাইন থেকে ইনকাম করার উপায় ২০২৩

কথায় আছে বাঙালি পরামর্শ ব্যতীত কোনো জিনিস ফ্রি দেয় না। তবে এই কথাটা এখন ভুল প্রমাণিত হচ্ছে। পরামর্শ দেওয়ার বিনিময়ে গ্রহণ করা হয় এখন। সাধারণত উকিল এবং ডাক্তার পেশার মানুষেরা পরামর্শ দেওয়ার জন্য অর্থ গ্রহণ করে থাকেন।

আপনার যদি আইন সম্পর্কে ভালো জ্ঞান থাকে, তাহলে আপনিও আইন বিষয়ক পরামর্শ দিয়ে ভালো টাকা ইনকাম করতে পারবেন। এছাড়া বিভিন্ন ইন্স্যুরেন্স কোম্পানী তাদের ব্যবসার জন্য এজেন্ট নিযুক্ত করে থাকে। এজেন্টের কাজ হলো সেই কম্পানির পলিসি সম্পর্কে গ্রাহককে বিস্তারিত তথ্য দেওয়া। আপনি বিভিন্ন কোম্পানির সাথে যোগাযোগ করে পরামর্শদাতা হয়ে অনলাইনে ইনকাম করতে পারেন।

(২৩) কাস্টমার বা ক্লায়েন্ট রেফার করে অনলাইন আয় করা | অনলাইন থেকে আয় করার উপায় ২০২৩

কাস্টমার বা ক্লায়েন্ট রেফার করেও আপনি টাকা ইনকাম করতে পারবেন। আপনার যদি কোন একটি ওয়েবসাইট থাকে এবং যেটাতে পর্যাপ্ত পরিমাণ ভিজিটর থাকে তাহলে আপনি গুগল এডস্ এর মাধ্যমে টাকা ইনকাম করতে পারবেন। সেই সাথে আপনি অন্য কোনো প্রতিষ্ঠান এর পণ্যের জন্য কাস্টমার বা ক্লায়েন্ট রেফার করে অনলাইনে ইনকাম করতে পারবেন।

হয়তো আপনি অনলাইনে ভালো রেস্টুরেন্ট সম্পর্কে একটি ব্লগ পোস্ট করেছেন। সেখানে আপনি কোনো ভালো রেস্টুরেন্টের সাথে চুক্তিবদ্ধ হয়ে আপনার লেখায় রেস্টুরেন্টের লিংক দিয়ে দেবেন।

এছাড়া আপনি ব্যক্তিগতভাবেও কাস্টমার সংগ্রহ করে দিতে পারেন। এই কাজগুলো কমিশনের ভিত্তিতে করা হয়ে থাকে। সাধারণত ২০ থেকে ৪০ পার্সেন্ট কমিশন দেওয়া হয়।

(২৪) গবেষণা করে আয় | অনলাইন থেকে আয় করার উপায় ২০২৩

গবেষণা করে আয় করা যায় এটা সত্য। কিন্তু আপনি ভাবতে পারেন আপনার মাঝে তো সেই যোগ্যতা নেই গবেষণা করার। এটা অবশ্য ঠিক যে গবেষণা করতে অনেক বেশি লেখাপড়ার প্রয়োজন হয়। কিন্তু কিছু কিছু বিষয় রয়েছে যেগুলোর জন্য পড়ালেখার চেয়ে উপস্থিত বুদ্ধি থাকতে হয়।

যেমন ধরুন বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান কোনো পণ্য বাজারে আনার আগে মানুষের জনমত যাচাই করার জন্য পরিসংখ্যান চালায়। আজকাল পরিসংখ্যান সাধারণত সোশ্যাল মিডিয়া যথা ফেসবুকের মাধ্যমে চালানো হয়। এ সকল পরিসংখ্যান চালাতে অনেক জনবলের প্রয়োজন হয়। আপনি কোন প্রতিষ্ঠানের সাথে যুক্ত হয়ে এ ধরনের পরিসংখ্যান করে টাকা ইনকাম করতে পারেন।

আমাদের দেশের বিশ্ববিদ্যালয়ের অনেক বাংলাদেশের কোনো কিছু নিয়ে পিএইচডি করার জন্য গবেষণা করে। যেমন ধরুন বাংলাদেশের প্রতিবছর বজ্রপাতে মৃত্যুবরণ করে কতজন। এগুলোকে প্রতিরোধের উপায়। এ ধরনের তথ্য সংগ্রহ করার জন্য বিপুল সংখ্যক জনবল প্রয়োজন। আপনি এ ধরনের গবেষণার কাজ করে অনলাইনে ইনকাম করতে পারেন।

(২৫) ট্রাভেল রাইটার হয়েও উপার্জন | অনলাইন আয় করার উপায় ২০২৩

আপনি যদি ভ্রমণ পিপাসু হয়ে থাকেন তাহলে এটা আপনার জন্য সুবর্ণ সুযোগ। ভ্রমণ করতে গেলে অনেক টাকার প্রয়োজন হয়। কিন্তু আপনি চাইলেই অনলাইন থেকে ইনকাম করতে পারবেন। আপনার ভ্রমণ বৃত্তান্ত সুন্দর করে গুছিয়ে যদি ব্লগ পোস্ট করেন, তাহলেও আপনি অনেক টাকা ইনকাম করতে পারবেন।

ট্রাভেল রাইটারদের ইনকামের প্রধান উৎস হচ্ছে বিভিন্ন রেস্টুরেন্ট ও হোটেল থেকে। আপনি যদি বিশ্বাস হয় হোটেল বা রেস্টুরেন্টের প্রমোশন করেন তাহলে ওই প্রতিষ্ঠানের মালিকেরা আপনাকে সম্মানী বাবদ কিছু টাকা দেবে। বাংলাদেশের এমন অনেক জায়গা আছে যেখানে দেখার মতো অনেক সুন্দর জিনিস আছে। কিন্তু সেটার প্রচারণা নাই বিধায় সেখানে পর্যটক খুব কম। আপনি এই সুযোগটা কাজে লাগিয়ে অনলাইনে টাকা ইনকাম করতে পারবেন।

(২৬) অনলাইন কোর্স সেটআপ করে টাকা উপার্জন | অনলাইন থেকে আয় করার উপায় ২০২৩

করোনা মহামারীর সময় থেকে একটি জিনিস খুবই জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে। আর সেটা হচ্ছে অনলাইন ক্লাস। এখন শুধু স্কুল-কলেজের ছাত্র-ছাত্রীদের জন্যই নয়, বিভিন্ন বিষয়ের উপর বিভিন্ন ধরনের কোর্স রয়েছে। এ ধরনের কোর্সগুলো অনলাইনেই হয়ে থাকে। যারা বিশেষ করে চাকরিজীবী তারা সাধারণত কোনো প্রতিষ্ঠানে গিয়ে ক্লাস করার সময় পায় না। তাই তাদের একমাত্র ভরসা অনলাইন কোর্স করা।

এবার আপনি আপনার দক্ষতা অনুসারে ক্লাস করা শুরু করুন। আপনি যে বিষয়ে পারদর্শী সেই বিষয়ে অনলাইনে কোর্স করান এবং ফি বাবদ টাকা ইনকাম করুন।

(২৭) Transcribing অনলাইন আয় করার নিশ্চিত উপায় | অনলাইন থেকে আয় করার উপায় ২০২৩

ইন্টারনেটের কল্যাণে এমন এমন স্থান থেকে কাজের অফার আসে যা আজ থেকে কয়েক বছর আগেও মানুষ কল্পনা করত না। এখন মানুষ ঘরে বসেই নানান ধরনের কাজ করতে পারে। এই Transcribing হচ্ছে এমন একটি কাজ। এটা হল প্রতিলিপি করা অর্থাৎ আপনাকে অডিও ফাইল দেওয়া হবে সেটা দেখে আপনি প্রতিলিপি করবেন। আপনি যদি দ্রুত টাইপ করতে পারেন তাহলে আপনার জন্য এটা একটি সুবর্ণ সুযোগ।

(২৮) ভিডিও এডিটিং করে ইনকাম | অনলাইন থেকে ইনকাম করার উপায় ২০২৩

আজকাল বিভিন্ন শর্ট ফিল্ম অথবা মাল্টিন্যাশনাল কোম্পানির বিজ্ঞাপনের জন্য ভিডিও এডিটিং করতে হয়। বিভিন্ন ধরনের প্রতিষ্ঠান রয়েছে যারা ভিডিও এডিটিং এর জন্য মানুষ নিয়োগ দেয়। এই কাজটা খুবই জটিল একটি কাজ। কিন্তু আপনি যদি এই কাজে দক্ষ হয়ে থাকেন, তাহলে এটা আপনার জন্য আশীর্বাদ স্বরূপ। আপনি ভিডিও এডিটিং এর মাধ্যমে মাসে ভালো এমাউন্টের টাকা ইনকাম করতে পারবেন।

(২৯) ডোনেইম বেচা-কেনার মাধ্যমে ইনকাম | অনলাইন থেকে আয় করার উপায় ২০২৩

অনলাইনে টাকা ইনকাম করার ব্যাপক জনপ্রিয় উপায় হলো ডোমেইন ফ্লিপিং। মানে একটি ডোমেইন নেম কিনে সেটিকে বেশি দামে সেল করা।

প্রথমেই আপনাকে ডোমেইন নেম সম্পর্কে প্রচুর গবেষণা করতে হবে। কী ধরণের ডোমেইন নেম এর চাহিদা ও দাম বেশি সে সম্পর্কে জানতে হবে। এরপর আপনাকে একটি ডোমেইন নেম কিনতে হবে। আকর্ষণীয় এবং অর্থ আছে এমন কিছু নামের ডোমেইন কিনে রাখবেন। তবে এক্সপায়ারড হয়ে যাওয়া ডোমেইন নেম কেনাই অনেক লাভজনক।

চাইলে আপনি ডোমেইন নেমটি তাড়াতাড়ি বিক্রি করে ফেলতে পারেন, আবার অনেকদিন এটাকে নিজের কাছে রেখে দাম বৃদ্ধি পেলে পরে বিক্রি করতে পারেন।

ডোমেইন বেচা-কেনার মার্কেটপ্লেস:
• Flippa
• GoDaddy
• Namecheap auction
• Freemarket
• Sedo

(৩০) পেইড সার্ভের মাধ্যমে অনলাইনে ইনকাম করার উপায় | অনলাইন থেকে ইনকাম করার উপায়

এমন অনেক ধরণের পেইড সার্ভে আছে, যেখানে আপনি অনলাইন ইনকাম (Online Income) করতে পারবেন। বস্তুত কোনো কোম্পানি থেকে তাদের পণ্য সম্পর্কে মানুষের মতামত কী, নতুন প্রোডাক্টে কী কী থাকা দরকার, এগুলো জানতে সার্ভে করা হয়।

অনলাইন সার্ভে করার কিছু জনপ্রিয় ওয়েবসাইট: অনলাইন সার্ভে করে কয়েকটি টাকা ইনকাম করার ওয়েবসাইট:
• Opinion Now
• Viewpoint Panel
• Toluna
• ySense
• neobux
• I-say
• Onepoll
• Swagbucks
• Your Surveys
• PrizeRebel

মোবাইল দিয়ে টাকা ইনকাম করার উপায়

বর্তমানে অনলাইন থেকে ইনকাম করার জন্য কম্পিউটার কিংবা ল্যাপটপ থাকা বাধ্যতামূলক নয়। অনলাইন থেকে মোবাইল দিয়ে টাকা ইনকাম করার অনেক উপায় রয়েছে। কিন্তু সকলের পক্ষে সবকিছু করা সম্ভব হয়ে উঠে না, আর প্রোপার গাইডলাইন ছাড়া ইনকাম করা সম্ভব হয় না। এছাড়াও ইন্টারনেটে আমরা এমন অনেক তথ্য পেয়ে থাকি যা শুধু প্রতারনা। প্রয়োজনের সময় বিশ্বস্ত সাইট টি না পেলে আমরা অনেকেই মোবাইল দিয়ে টাকা ইনকাম করার ক্ষেত্রে হাল ছেড়ে দেই।

ফ্রিল্যান্সিং করার প্রায় ৮,০০০+ টি মাধ্যম রয়েছে। এর মধ্যে অধিকাংশ কাজই মোবাইল দিয়েই করা সম্ভব। তবে মোবাইল দিয়ে অনলাইন ইনকাম করার জন্য সবচেয়ে সহজ ৫টি কাজ হলো: 

  • এফিলিয়েট মার্কেটিং ও  Amazon Bounty Programme;
  • Online Survey করে ইনকাম;
  • Micro Work Site থেকে ইনকাম;
  • মোবাইল দিয়ে Reselling করে ইনকাম:
  • Telecom ব্যবসা করে ইনকাম।

উপরোক্ত কাজগুলো করতে তেমন দক্ষতা প্রয়োজন হয়না। যেকেউ একটুসময় দিয়েই কাজ আয়ত্ত করতে পারবে। 

পরিশেষে কিছু কথা: আপনার যদি দক্ষতা, ধৈর্য এবং মেধা থাকে তাহলে অবশ্যই আপনি অনলাইনে টাকা ইনকাম করতে পারবেন। এখানে বর্ণিত বিষয়গুলো ছাড়াও আরো অনেকভাবে অনলাইন ইনকাম করা যায়। এখানে সংক্ষিপ্ত আকারে সবকিছু বর্ণনা করা হয়েছে। আপনারা বিস্তারিত জানতে চাইলে অভিজ্ঞদের সাথে যোগাযোগ করুন।

1 thought on “৩০টি অনলাইন ইনকাম করার উপায় ২০২৩”

  1. ট্রাভেল রাইটার হয়ে কিভাবে ইনকাম করতে পারি। এই বিষয়ের উপর আরো বিস্তারিত আর্টিকেল পাবলিশ করলে ভালো হতো। একজন ট্রাভেল রাইটারের কি কি যোগ্যতা থাকা উচিৎ বলে আপনি মনে করেন?

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Scroll to Top