আমি প্রবাসী – Ami Probashi

বর্তমানে প্রতিটি বিদেশগামী প্রবাসীদের সাথে ‘আমি প্রবাসী’ (Ami probashi) ওতপ্রোতভাবে জড়িত। এই অ্যাপ এর ব্যবহার ছাড়া বর্তমানে চাকরির জন্য বিদেশ যাওয়া প্রায় অসম্ভব। এটি বাংলাদেশের বিদেশ গমনেচ্ছুদের জন্য আলাদিনের প্রদীপ।

বিদেশ গমনের সম্পূর্ণ পদ্ধতিকে আরো সাশ্রয়ী, নির্ভরযোগ্য ও সুস্পষ্ট করতে সেবা প্ল্যাটফর্ম আমি প্রবাসী। তাই আমি প্রবাসী (Ami probashi), এর সেবা সমূহ, আমি প্রবাসী রেজিস্ট্রেশন, আমি প্রবাসী সার্টিফিকেট ডাউনলোড সহ সকল তথ্য থাকছে এই আলোচনায়।

আমি প্রবাসী – Ami Probashi

আমি প্রবাসী (Ami probashi) বাংলাদেশী নাগরিকদের বৈদেশিক কর্মসংস্থান সম্পর্কিত তথ্য ও সেবার ডিজিটাল প্লাটফর্ম।

আমি প্রবাসী- এর প্রধান অংশীদারদের মধ্যে রয়েছে বিএমইটি, মন্ত্রণালয়, বিওইওএসএল- এর মতো সরকারি সংস্থা, নিয়োগকারী সংস্থা এবং বিদেশি নিয়োগকর্তা।

বিদেশে চাকরি পাওয়ার ক্ষেত্রে অথবা কাজের ভিসায় বিদেশে যেতে আমি প্রবাসী জনকল্যাণমূলক কাজ করে। দেশের অভ্যন্তরে বিদেশ যাওয়ার পূর্বে সকল সেবা দেয় এটি। পাশাপাশি প্রবাসী অবস্থায়ও বিভিন্ন সেবা প্রদান করে থাকে। আমি প্রবাসী মোবাইল অ্যাপ্লিকেশন এর মাধ্যমে সকল সেবা গ্রহণ করা যায়।

আমি প্রবাসী এর সেবাসমূহ

আমি প্রবাসী অ্যাপ বিদেশ গমনের প্রায় সকল সেবা দিয়ে থাকে। বর্তমানে এর আওতায় সেবা সমূহ হলো-

  • বিএমইটি রেজিস্ট্রেশন;
  • পাসপোর্ট অফিস সম্পর্কিত সেবা;
  • মেডিকেল সেন্টার সম্পর্কিত সেবা;
  • বাংলাদেশ দূতাবাস সমূহের অবস্থান ও বিস্তারিত তথ্য সেবা;
  • সরাসরি রিক্রুটিং এজেন্সি এর সাথে যোগাযোগ ব্যবস্থা;
  • অগ্রাধিকার ভিত্তিতে বিদেশ গমনেচ্ছুক ব্যক্তিদের ভ্যাক্সিনেশন ব্যবস্থা;
  • বিদেশে সরকার অনুমোদিত বিভিন্ন চাকরির খোঁজ;
  • বিনামূল্যে বিএমইটি ও ব্র্যাক পরিচালিত ট্রেনিং কোর্সে আবেদনের সুযোগ;
  • বিদেশে বৈধভাবে যেতে প্রয়োজনীয় জেলা জনশক্তি অফিস।

এছাড়াও আরো অনেক পরিষেবা চালু আছে। জরুরি সেবা ও তথ্য পেতে রয়েছে আমি প্রবাসী হেল্প সেন্টার।

আমি প্রবাসী ও বিএমইটি তথ্য ভান্ডার

আমি প্রবাসী (Ami probashi) বর্তমানে দেশের প্রবাসী জনগোষ্ঠীর বিস্তারিত তথ্য ভান্ডার। জনশক্তি রপ্তানি ও প্রশিক্ষণ ব্যুরোর সরকারি তথ্য ভান্ডার হিসেবে এটি কাজ করছে।

বর্তমানে কাজের জন্য বা বিদেশে চাকরি নিয়ে যেতে ইচ্ছুক সকলের জন্য বিএমইটি রেজিস্ট্রেশন করা বাধ্যতামূলক। বিদেশ যেতে আগ্রহী ব্যক্তির- ব্যক্তিগত ও পারিবারিক তথ্য, দক্ষতা, কাজের অভিজ্ঞতা এবং শিক্ষাগত যোগ্যতার যাবতীয় তথ্য দিয়ে রেজিস্ট্রেশন করতে হবে। এসকল কার্যক্রম আমি প্রবাসী মোবাইল অ্যাপের মাধ্যমে করা সহজ।

আমি প্রবাসী রেজিষ্ট্রেশন

আমি প্রবাসী অ্যাপে রেজিস্ট্রেশন করার জন্য Google Play Store – থেকে অ্যাপটি ডাউনলোড করে নিন। তারপর তা ওপেন করে নিচের ধাপগুলো অনুসরণ করুন-

ধাপ ১: মোবাইল নাম্বার দিন

কান্ট্রি কোড (+880) সহ আপনার একটি সচল মোবাইল নাম্বার দিন।

আমি প্রবাসী মোবাইল নাম্বার
আমি প্রবাসী মোবাইল নাম্বার

ধাপ ২: মোবাইল নাম্বার ভেরিফাই

আপনার দেওয়া মোবাইল নাম্বারে ৪ সংখ্যার একটি কনফার্মেশন কোড পাঠানো হবে। কোডটি এখানে লিখে কনফার্ম বাটনে ক্লিক করুন।

আমি প্রবাসী মোবাইল নাম্বার ভেরিফাই
আমি প্রবাসী মোবাইল নাম্বার ভেরিফাই

ধাপ ৩: পাসওয়ার্ড তৈরি করুন

আপনার আমি প্রবাসী (Ami probashi) একাউন্টের জন্য একটি পাসওয়ার্ড লিখুন। পাসওয়ার্ডটি সর্বনিম্ন ৬ ক্যারেক্টারের হবে এবং অন্তত একটি নম্বর ও একটি অক্ষর চিহ্ন থাকবে। পাসওয়ার্ডটি নিশ্চিত করতে পুনরায় নিচের ধাপে তা লিখে পরবর্তী বাটনে ক্লিক করুন।

আমি প্রবাসী পাসওয়ার্ড তৈরি
আমি প্রবাসী পাসওয়ার্ড তৈরি

ধাপ ৪: কাঙ্খিত দেশ সিলেক্ট করুন

যে দেশে যেতে আগ্রহী বা যাবেন এমন দেশ সিলেক্ট করুন। কমপক্ষে তিনটি দেশ নির্বাচন করে পরবর্তী বাটনে ক্লিক করুন। পরের পেজে, আপনার কাঙ্খিত পেশা নির্বাচন করুন। একাধিক পেশা সিলেক্ট করতে পারবেন।

আমি প্রবাসী দেশ সিলেক্ট
আমি প্রবাসী দেশ সিলেক্ট

ধাপ ৫: রেজিস্টার কারীর সাধারণ তথ্য

এবার, রেজিস্টার কারীর নিম্নোক্ত তথ্যগুলো পূরণ করুন-

  • লিঙ্গ;
  • বয়স;
  • শিক্ষাগত যোগ্যতা;
  • চাকরির অবস্থা;
  • বর্তমানে বিদেশে কর্মরত কি-না;
  • পূর্বে কোন বিএমইটি/ স্মার্ট কার্ড আছে কিনা।

সকল তথ্য দেওয়ার পর পরবর্তী বাটনে ক্লিক করুন।

আমি প্রবাসী রেজিস্টার কারীর সাধারণ তথ্য
আমি প্রবাসী রেজিস্টার কারীর সাধারণ তথ্য

ব্যাস, আপনার আমি প্রবাসী (Ami probashi) অ্যাপে প্রাথমিক রেজিস্ট্রেশন সম্পন্ন হয়েছে।

আমি প্রবাসী সার্টিফিকেট

বিদেশে যাওয়ার পূর্বে ট্রেনিংয়ের কথা আমরা প্রায় সকলেই জানি। বিদেশ গমন সম্পর্কিত বিভিন্ন দিকনির্দেশনা ও পরামর্শমূলক একটি ওরিয়েন্টেশন ট্রেনিং করানো হয়। এটি জনশক্তি, কর্মসংস্থান ও প্রশিক্ষণ ব্যুরো – BMET কর্তৃক এই ট্রেনিং পরিচালিত হয়। এই ট্রেনিং কার্যক্রম ৩ দিনের হয়।

ট্রেনিং সম্পন্ন হওয়ার পর একটি সার্টিফিকেট দেওয়া হয়। সেই ট্রেনিং সার্টিফিকেটকে PDO- Pre-departure Orientation সার্টিফিকেট বলে।

বিদেশে গমনেচ্ছুক ব্যক্তির নিজ এলাকার জেলা অফিসে এই ট্রেনিং করতে পারবে। ট্রেনিংয়ের জন্য আবেদন করতে পূর্বেই আমি প্রবাসী রেজিস্ট্রেশন করতে হয়। তারপর ট্রেনিং সেন্টার ও তারিখ নির্বাচন করে ট্রেনিংয়ের জন্য আবেদন করতে হয়।

আমি প্রবাসী সার্টিফিকেট ডাউনলোড

বিদেশ গমনের ট্রেনিং শেষ হওয়ার পর আমি প্রবাসী অ্যাপ থেকেই সার্টিফিকেট ডাউনলোড করতে পারবেন। PDO সার্টিফিকেট ডাউনলোড করার জন্য নিচের দেখানো ধাপগুলো অনুসরণ করুন-

ধাপ ১: আমি প্রবাসী অ্যাপে লগইন

মোবাইল নাম্বার ও পাসওয়ার্ড দিয়ে আমি প্রবাসী (Ami probashi) অ্যাপে লগইন করুন।

ধাপ ২: প্রি-ডিপার্চার ওরিয়েন্টেশন

PDO সার্টিফিকেট ডাউনলোড করার প্রি-ডিপার্চার ওরিয়েন্টেশন অপশনে যান।

ধাপ ৩: ডাউনলোড সার্টিফিকেট অপশন

এবার, আপনি ট্রেনিং সম্পন্ন করে থাকলে স্বয়ংক্রিয়ভাবে আপনার সার্টিফিকেট আপনার আমি প্রবাসী একাউন্টে সংযুক্ত থাকবে। সার্টিফিকেট টি স্ক্যান করে দেখতে পাবেন। নিচে ডাউনলোড সার্টিফিকেট লেখাতে ক্লিক করে ডাউনলোড শুরু করুন।

আমি প্রবাসী ডাউনলোড সার্টিফিকেট
আমি প্রবাসী ডাউনলোড সার্টিফিকেট

এবার, ‘Pay The Service Fee’ লেখা স্ক্রিনে দেখতে পাবেন। সেখান থেকে Continue তে ক্লিক করুন।

তারপর পেমেন্ট অপশন বিকাশ সিলেক্ট করুন। নিচের আই এগ্রি (I Agree) এর চেকবক্সে ঠিক দিন। সর্বশেষ Pay 100.00 লেখাটিতে ক্লিক করুন।

ধাপ ৪: পেমেন্ট পরিশোধ ও সার্টিফিকেট ডাউনলোড

পেমেন্ট করার জন্য রিডায়ারেক্ট করে বিকাশের পেমেন্ট ইন্টারফেসে নিয়ে আসবে। এখানে,

  • আপনার বিকাশ একাউন্ট নাম্বার দিন;
  • উক্ত নাম্বারে একটি ৬ ডিজিটের ভেরিফিকেশন কোড আসবে। সেই কোডটি লিখে Confirm বাটনে ক্লিক করুন।
  • তারপর আপনার বিকাশ একাউন্টের পিন কোড দিন।

পেমেন্ট সম্পন্ন হলে আমি প্রবাসী (Ami probashi) পিডিও সার্টিফিকেট ডাউনলোড পেজে নিয়ে যাবে। সেখানে পুনরায় Download Certificate লেখাতে ক্লিক করুন।

আমি প্রবাসী পেমেন্ট
আমি প্রবাসী পেমেন্ট

ব্যাস, আপনার আমি প্রবাসী সার্টিফিকেট ডাউনলোড হয়ে যাবে।

আমি প্রবাসী PDO

আমি প্রবাসী অ্যাপ থেকে PDO বা প্রি-ডিপার্চার ওরিয়েন্টেশন ট্রেনিংয়ের জন্য আবেদন করতে হয়। নির্দিষ্ট কার্যালয়ে ৩ দিনের ট্রেনিং শেষ হওয়ার পর PDO Certificate দেওয়া হয়। এই সার্টিফিকেটটি আমি প্রবাসী অ্যাপ থেকেই ডাউনলোড করার সুযোগ রয়েছে।

  • প্রথমে, আমি প্রবাসী অ্যাপে লগইন করুন;
  • প্রি-ডিপার্চার ওরিয়েন্টেশন (Pre-Departure Orientation) অপশনে যান;
  • আপনার পাসপোর্ট নাম্বার দিন;
  • ক্যাপচা পূরণ করুন;
  • Download Certificate বাটনে ক্লিক করুন এবং একটি পেমেন্ট অপশন সিলেক্ট করুন;
  • মোবাইল ব্যাংকিং বা ব্যাংক থেকে আমি প্রবাসীতে ১০০ টাকা;
  • এবার, পূনরায় Download Certificate বাটনে ক্লিক করলে সার্টিফিকেট ডাউনলোড হয়ে যাবে।

আমি প্রবাসী ট্রেনিং সার্টিফিকেট

উপরোক্ত নিয়মে, আমি প্রবাসী (Ami probashi) অ্যাপে লগইন করে প্রি-ডিপার্চার ওরিয়েন্টেশন অপশন থেকে ১০০ টাকা ফ্রি দিয়ে ট্রেনিং সার্টিফিকেট সংগ্রহ করতে পারবেন। নিজের মোবাইল ফোন দিয়ে খুব সহজেই আমি প্রবাসী অ্যাপ বা ওয়েবসাইট থেকে সার্টিফিকেট সংগ্রহ করতে পারবেন।

আমি প্রবাসী অ্যাপ -Ami Probashi App

আমি প্রবাসী অ্যাপটি অভিবাসী শ্রমিক বা প্রবাসী বাংলাদেশীদের জন্য একটি সেবামূলক অ্যাপ। বৈদেশিক কর্মসংস্থান মূলক সেবা দেশের জনগণের জন্য ডিজিটালাইজড ও সহজ করতে ৮ মে ২০২১ সালে আমি প্রবাসী অ্যাপ চালু করা হয়।

বর্তমানে আমি প্রবাসী অ্যাপের মাধ্যমে বিদেশে গমনের সকল তথ্য ও সেবা পাওয়া যাচ্ছে হাতের মুঠোয়। অ্যাপটি ডাউনলোড করতে এই লিংকে ক্লিক করুন- Ami probashi.

আমি প্রবাসী অ্যাপ ব্যবহারের সুবিধাসমূহ

আমি প্রবাসী অ্যাপ বর্তমানে বিদেশে যেতে বাংলাদেশের সরকারি কর্মকান্ডের জন্য অতীব গুরুত্বপূর্ণ। এই অ্যাপসের মাধ্যমে প্রতিটি বিদেশ গমনেচ্ছুক ব্যক্তি বেশ কয়েকটি উল্লেখযোগ্য সুযোগ-সুবিধা গ্রহণ করতে পারে। যেমন:

  • বিএমইটির তথ্য ভান্ডারে ব্যক্তিগত তথ্যাবলী রেজিস্টার করা যায়।
  • নিকটস্থের জেলা জনশক্তি সম্পর্কিত সকল অফিসের তথ্য জানা যায়।
  • নিকটস্থ মেডিকেল সেন্টারগুলোর তথ্য জানা যায়।
  • বিদেশে যাওয়ার ক্ষেত্রে প্রয়োজনীয় রিক্রটিং এজেন্সির তথ্যাবলী সংগ্রহ করা যায়।
  • বিদেশে চাকরি পাওয়ার জন্য উপযুক্ত গাইডলাইন প্রদান করে।
  • বিদেশে থাকাকালীন অবস্থায় কোনরূপ সমস্যার সম্মুখীন হলে এই অ্যাপ্লিকেশনের মাধ্যমে বাংলাদেশি দূতাবাসে যোগাযোগ করা যায়।
  • পৃথিবীর বিভিন্ন উন্নত দেশগুলোর নানান চাকরির বিজ্ঞপ্তি এই অ্যাপ্লিকেশনে পাওয়া যায়।

তাই প্রবাসে যাওয়ার জন্য আমি প্রবাসী অ্যাপ্লিকেশনটি ব্যবহার করা অপরিহার্য।

আমি প্রবাসী অ্যাপ হেল্পলাইন নম্বর

Ami Probashi -মোবাইল অ্যাপ্লিকেশনটি বাংলাদেশের প্রবাসীদের জন্য প্রবাসী ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয় কর্তৃক পরিচালিত হচ্ছে। তাই প্রবাসী কল্যাণ মন্ত্রণালয়ের ওয়েবসাইট থেকেই বিদেশ গমন সম্পর্কে সামগ্রিক তথ্য জানা সম্ভব। তবে অতি প্রয়োজনে কিংবা আমি প্রবাসী অ্যাপস এর একাউন্টে কোন ভুল হলে, নিম্নোক্ত হেল্পলাইন নম্বরে যোগাযোগ করতে পারেন:

হেল্পলাইন নম্বর: 

+৮৮ ০১৭১৩৬৫২৯৪২, +৮৮ ০১৯৬৩৮০১৬৭৬

ই-মেইল ঠিকানা: 

support@amiprobashi.com

আমি প্রবাসী সম্পর্কে সচরাচর জিজ্ঞাসিত প্রশ্নোত্তর (FAQ’s)

আমি প্রবাসী বিএমইটি কার্ড কি?

জনশক্তি কর্মসংস্থান ও প্রশিক্ষণ ব্যুরো বিদেশগামী প্রবাসী কর্মীদের বিএমইটি কার্ড প্রদান করে। এটি স্মার্ট কার্ড নামেও পরিচিত। BMET কার্ড ছাড়া চাকরির জন্য বিদেশ গমন করা যায় না।

আমি প্রবাসী এনরোলমেন্ট কার্ড কি?

বিদেশে যাওয়ার পূর্বে বাধ্যতামূলক প্রি-ডিপার্চার ওরিয়েন্টেশন –PDO বুক করার পর একটি এনরোলমেন্ট কার্ড দেওয়া হয়। পিডিও ট্রেনিংয়ে উপস্থিত হতে এই এনরোলমেন্ট কার্ডটি স্ক্যান করতে হয়। রেজিস্ট্রেশন করার পর রেজিস্টারকৃত বৈধ পাসপোর্ট দিয়ে আমি প্রবাসী অ্যাপ থেকে এনরোলমেন্ট কার্ড ডাউনলোড করা যায়।

শেষকথা

আমি প্রবাসী (Ami probashi)– প্রবাসী সেবা প্রধানের একই ডিজিটাল মাইলফলক। এটি দেশের বহির্গমন সিস্টেমকে অনেক বেশি স্বচ্ছ ও নিরাপদ করে তুলেছে। একটি অ্যাপের মাধ্যমেই পরিচালনা করা যাচ্ছে বিদেশে কাজ পাওয়ার সকল কার্যক্রম।

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Scroll to Top